Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটে স্বস্তির বাতাস

স্পোর্টস ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ১৫ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০২ এএম

জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট বোর্ডে রাজনৈতিক হস্তক্ষেপের কারণ দেখিয়ে আইসিসির সদস্যপদে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আনা হয়। আর এরপরেই জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটে নেমে আসে অন্ধকার সময়। তবে সেই অন্ধকারে নতুন করে আলোর সঞ্চারণ হচ্ছে। বহিস্কৃত গভর্নিং বডিকে পুনর্বহাল রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জিম্বাবুয়ের স্পোর্টস এবং রিক্রিয়েশন কমিশন (এসআরসি)।

জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান তাবেংওয়া মুকুলানিকে পুনর্বহাল করতে জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটকে ৮ অক্টোবর পযর্ন্ত সময় দিয়েছিল আইসিসি। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার দেখানো সেই পথেই হাঁটছে দেশটির ক্রিকেট। অন্তঃবর্তীকালীন কমিটি ভেঙে সাময়িক বরখাস্ত বোর্ড কর্মকর্তাদের পুনরায় ফিরিয়ে আনা হচ্ছে।

দায়িত্বে থাকা জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের পরিচালকদের বহিস্কার করে জুলাই মাসে অন্তবর্তীকালীন কমিটি দেওয়া হয়। এর আগে ‘রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ’ থাকার অভিযোগ এনে জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট বোর্ডের সদস্য পদ স্থগিত করে আইসিসি। জনপ্রিয় ক্রিকেটভিত্তিক সংবাদমাধ্যমকে গতপরশু এসআরসি জানিয়েছে, ‘আদালতের আদেশ অনুযায়ী, এসআরসি ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক গিভমোর মাকোনিসহ জিম্বাবুয়ের সকল ক্রিকেট পরিচালকদের ওপর বহিস্কারাদেশ প্রত্যাহার করে নিয়েছে এবং অন্তবর্তীকালীন কমিটি বোর্ড পরিচালনার দায়িত্ব বন্ধ রেখেছে।’

আইসিসির স্থগিতাদেশ পাওয়ার পর জুনে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটকে নিষিদ্ধ করে এসআরসি। দুর্নীতির দায়ে বহিস্কার করা হয় গিভমোর মাকোনিকে। আর এই নিষেধাজ্ঞায় পড়ে শেষ হয়ে যেতে বসেছিল জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট। নারীদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেয় তারা। আর এই নিষেধাজ্ঞার কারণেই পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব খেলতে পারছে না তারা ।

সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল জিম্বাবুয়ে, আফগানিস্তান আর স্বাগতিক বাংলাদেশকে নিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ। তবে নিষেধাজ্ঞায় পড়ে ভেস্তে যেতে বসেছিল সেই সিরিজ। কিন্তু বাংলাদেশ এই দু:সময়ে বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দেয় জিম্বাবুয়ের দিকে। প্রথমে অনিশ্চিত হলেও শেষ পর্যন্ত জিম্বাবুয়েকে নিয়েই বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হবে ত্রিদেশীয় সিরিজ। আর এই সিরিজকে ঘিরে আবারও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার স্বপ্ন দেখছে জিম্বাবুয়ে। তবে আইসিসি থেকে এখনও কোনো প্রকার নির্দেশনা দেওয়া হয়নি এই ব্যাপারে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন