Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

ট্যানারি শিল্প ধ্বংসের চক্রান্ত চলছে

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

চামড়া রফতানির সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের ট্যানারি শিল্পকে ধ্বংস করে দেবে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। গতকাল বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, কোরবানির পশুর চামড়ার ন্যায্যমূল্য না পেয়ে যখন দেশের মানুষ ক্ষোভে-দুঃখে চামড়া মাটিতে পুঁতে ফেলল, ঠিক তখনি পানির দরে কেনা কাঁচা চামড়া রফতানির ঘোষণা দিলো ‘অন্ধকারের’ সরকার।

বিএনপির এই নেতা বলেন, ঈদ উপলক্ষে সরকারি ছুটি চলছে। অফিস, আদালত সব বন্ধ। এই সময় হঠাৎ তরে অন্ধকারে কাঁচা চামড়া রফতানির ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার ঘোষণা দিলো সরকার। গরিব, মিসকিন, এতিমদের হক মারার পর কার স্বার্থোদ্ধারে, কেন এই তড়িঘড়ি করে রফতানির ঘোষণা দেয়া হলো, তা দেশের মানুষ জানতে চায়।

রুহুল কবির রিজভী সাধারণ জনগণের কাছ থেকে কম টাকায় চামড়া কিনে এতিম মিসকিনদের পেটে লাথি মারা হয়েছে অভিযোগ করে বলেন, কাঁচা চামড়া বিদেশে রফতানির সুযোগ দিয়ে বাংলাদেশের ট্যানারি শিল্পকেও ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেয়া হলো। এই চামড়াই আবার সম্মুখীন হবে।

চামড়ার কম দাম পূর্বপরিকল্পিত এবং সিন্ডিকেটের কারসাজি বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ধানের ন্যায্য মূল্য না পেয়ে কৃষকরা যখন ধানক্ষেতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল, ঠিক তখনই বিদেশ থেকে আমদানিকৃত ট্রাক বোঝাই চালের দৃশ্য দেখতে হয়েছিল। কোরবানি পশুর চামড়ার ন্যায্যমূল্য না পেয়ে যখন দেশের মানুষ চামড়া মাটিতে পুঁতে দিলো, ঠিক তখনই পানির দরে কেনা কাঁচা চামড়া রফতানির ঘোষণা দেয়া হলো।
যেমন করে ধান পুড়িয়ে অন্য দেশ থেকে চাল আনা হয়েছে, ঠিক তেমনি করেই চামড়াশিল্প ধ্বংস করে প্রতিবেশী দেশে রফতানি করতে হচ্ছে। ঠকছে কৃষক, ঠকছে এতিম-গরিব-মিসকিন। জিতছে লুটেরা, জিতছে সিন্ডিকেটরা।
ক্ষতিগ্রস্ত হবে এই শিল্পের সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত অনেক লোক। বেকার হয়ে পড়বে এর সঙ্গে জড়িতে বিপুল সংখ্যক মানুষ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন