Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

ফরিদগঞ্জে কিশোরী ধর্ষিত

চাঁদপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ আগস্ট, ২০১৯, ৪:৪১ পিএম

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে আত্মীয়ের বাড়িতে যাওয়ার পথে এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। বন্ধু রফিক ভুঁইয়ার সহযোগিতায় ফয়সাল ভুঁইয়া নামের এক বখাটে ওই কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় রফিক ভুঁইয়াকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধর্ষক ফয়সাল পলাতক। বুধবার দুপুরে ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৩টায় ওই কিশোরী তার আত্মীয়ের বাড়িতে যাচ্ছিল। মানিকরাজ নামক এলাকায় একটি দোকানের সামনে বসেছিল বখাটে ফয়সাল ভুঁইয়া (২৩) ও রফিক ভুঁইয়া (২১) নামের দুই বন্ধু। এ সময় দোকানপাট বন্ধ ছিল ও বৃষ্টি হচ্ছিল। আশপাশে লোকজন ছিল না। কিশোরীকে দেখে পিছু নেয় দুই বন্ধু। তারা এ কথা-সে কথা জিজ্ঞাসা করে থাকে।

একপর্যায়ে কিশোরীর মুখ চেপে রাস্তার পার্শ্ববর্তী নির্মাণাধীন তহসিল অফিসের ভেতর জোরপূর্বক ও টেনেহেঁচড়ে নিয়ে যায় তারা। সেখানে রফিক ভুঁইয়ার সামনে জোরপূর্বক কিশোরীকে ধর্ষণ করে বখাটে ফয়সাল। ধর্ষণের ঘটনা জানাজানি হলে কিশোরীকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে ছেড়ে দেয় তারা।

বুধবার দুপুরে থানায় লিখিত অভিযোগে কিশোরীর মা বলেন, বাড়ি ফিরে মেয়ে ঘটনা জানায়। পার্শ্ববর্তী দেইচর গ্রামের ভুঁইয়া বাড়ির এনা ভুঁইয়ার ছেলে ফয়সাল ভুঁইয়া ও মৃত মফিজুল হক ভুইয়ার ছেলে রফিক ভুইয়া এ সর্বনাশ করেছে। আমি তাদের বিচার চাই।

ফরিদগঞ্জ থানার এসআই সুমন্ত মজুমদার সঙ্গীয় ফোর্স তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে বিকেল ৩টায় সহযোগী রফিক ভুইয়াকে গ্রেপ্তার করেন। খবর পেয়ে পালিয়ে যায় ধর্ষক ফয়সাল ভুইয়া।

ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ রকিব উদ্দিন জানান, প্রাথমিকভাবে ধর্ষণের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে। ফয়সালকে আটক ও মামলার যথাযথ কার্যক্রমের জোর তৎপরতা চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ