Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

মেনে নিন নয়তো দেশ ছেড়ে চলে যান

লাঞ্ছিত রুয়েট শিক্ষক

রাজশাহী ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১৬ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম

রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের শিক্ষক রাশিদুল ইসলাম রাজশাহী নগরীর প্রাণকেন্দ্র সাহেব বাজার মনিচত্ত¡রে স্ত্রীকে বখাটেদের লাঞ্ছনার প্রতিবাদ করতে গিয়ে উল্টো মারধরের শিকার হতে হয়েছে। সবাই দাঁড়িয়ে দেখেছে কেউ প্রতিবাদ করেনি, সাহায্যে এগিয়েও আসেনি। ঘটনাটি ঘটেছে গত ১০ আগষ্ট। ক্ষোভে দুঃখে নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়েছে।

ঘটনার বিবৃতি দিয়ে ফেসবুকে রাশিদুল ইসলাম লেখেন, ‘মেনে নিন নয়তো দেশ ছেড়ে চলে যান।’
এদেশে আপনার চোখের সামনে আপনার মা, বোন অথবা বউ ধর্ষিত হলেও প্রতিবাদ করবেন না, আশপাশে কাউকে পাবেন না। মার খেয়ে মরবেন। কারণ আপনি একটা জানোয়ার, আমিও একটা জানোয়ার, জানোয়ারে ভরা সমাজ আমাদের।

আজকের ঘটনাটা সংক্ষেপে বলি। ‘সাহেববাজার মনিচত্তর এর মত জনবহুল এলাকাতেও আমার বউ হেনস্তার শিকার হয়। এক পাল ছেলের মধ্যে একজন আমার বউকে পেছন থেকে কয়েকবার ইচ্ছাকৃত ধাক্কা দেয়। দুই-তিনবার সহ্য করলেও পরেরবার প্রতিবাদ করি। ব্যাস, সোনার ছেলেদের দাপট শুরু। শেষে আমাকে সোনাদীঘি মসজিদের সামনে ৫-৭ জন মিলে ঘিরে ধরে মারা শুরু করে।
এ পর্যন্ত না হয় মেনে নিলাম। কিন্তু ওখানে কম করে হলেও ৫০ জন আমার মার খাওয়া দেখছিল। একজনও এগিয়ে আসেনি। মার খাওয়ার এক পর্যায়ে আমি দর্শকদের উদ্দেশ্যে বলি, ‘বাঁচান আমাকে’, কোন রেসপন্স পাইনি। একজন মোটরসাইকেল থামিয়ে আমার মার খাওয়া দেখছিল, আমি সাহায্য চাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মোটরসাইকেল চালিয়ে চলে গেল।

মার খেয়ে কাপুরুষ আমি দর্শকদের বলি, আপনারা আজ এগিয়ে এলেন না, একদিন আপনার বউয়ের সঙ্গে এমন হলেও কেউ এগিয়ে আসবে না। ও আমার বউ, গার্লফ্রেন্ড না, কাবিননামা দেখাতে হবে আপনাদের? এ সময় একজন ভিড়ের মধ্য থেকে বলে বসল, হ্যাঁ, কাবিননামা নিয়েই চলাফেরা করতে হবে। ধরেন, দ্বিতীয়বার আক্রমণে ওরা আমাকে মেরে ফেলল। কি করবেন? ফেইসবুকে কান্নাকাটি? জাত গেল জাত গেল রব তুলবেন? কোনোটাই করবেন না দয়া করে, এতে কিছু আসে যায় না। আর যারা করবে, তাদের গিয়ে থুথু দিয়ে আসবেন।
ধরেই নিয়েছিলাম, পিএইচডি শেষ করে দেশে ফিরব, মা বাবা চান না বাইরে স্যাটেল হই। এ ঘটনার পর দ্বিতীয়বার ভাবব অবশ্যই।



 

Show all comments
  • ash ১৬ আগস্ট, ২০১৯, ৪:০৮ এএম says : 0
    GOTO DOSH BOSORE DESHER CHOROM OBONOTI HOESE !! KHUN GUM DORSHON, YABA, RAHAJANI, SONTRASH, SATROLIG , JUBOLINGER JULUM, RAB PULISHER JULUM E EKAKAR , MANUSH ASHOLE GOR THEK BER HOTE VOY PAY AKHON, JARA DESHER BAIRE THAKE TARA O DESHE JETE VOY PAY, NA PARTE JAY NA
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রুয়েট শিক্ষক

১৮ আগস্ট, ২০১৯
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ