Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

ধর্ষণের প্রতিবাদ করায় বহিষ্কার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম

ধর্ষণের প্রতিবাদ করে সন্ন্যাসিনী মুখ খুলে সামনে এনেছিলেন আসল সত্য। সেই সন্ন্যাসিনী কিনেছেন গাড়ি। আর এটাই নাকি তার ‘অপরাধ’। এই অজুহাতে খ্রিস্টান গোষ্ঠী থেকে সন্ন্যাসিনীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
সন্ন্যাসিনীর নাম সিস্টার লুসি কেরল। তিনি ভ্যাটিকানের কাছে বহিষ্কারের প্রতিবাদে বিচার চেয়েছেন। সিস্টার লুসি স¤প্রতি একটি গাড়ি কেনেন। আর সমস্যার সূত্রপাত সেখান থেকেই। শুধুমাত্র গাড়ি কেনার জন্য নাকি তাকে খ্রিস্টান গোষ্ঠী থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, তার বিশেষ সম্পত্তি নেই। শুধুমাত্র নিজের দায়িত্ব পালন করতেই গাড়ি কিনেছেন। আর এই গাড়িটি সবচেয়ে সস্তা দামের। গাড়িতে করে অনেক বেশি গরিব রোগীর সঙ্গে দেখা করতে পারছেন। এছাড়াও স্কুলের ছোট ছোট ছাত্রছাত্রীদেরও গাড়িতে করে নিয়ে যান। তিনি যা করেন না কেন অন্যরা ভাল চোখে দেখেন না।

গত বছর ফাদার ফ্রাঙ্কো মুলাক্কালের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছিলেন এক সন্ন্যাসিনী। তাকে সমর্থন করেছিলেন সিস্টার লুসি। ওই সন্ন্যাসিনীর দাবি, নির্যাতিতাকে সমর্থন করার পর থেকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। বারবারই তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে তিনি কোনো নিয়মই মানছেন না।

সিস্টার লুসি বলেন, তার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগের ব্যাপারে কোনো ধারণা নেই। এছাড়াও তাকে বারবার প্রাণহানির হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এর ফলে তিনি আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন। ধর্ষণের প্রতিবাদ করার পরই চরম পদক্ষেপ হিসাবে খ্রিস্টান গোষ্ঠী থেকে বহিষ্কার করা হয়। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন