Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

নিহত দুই বাংলাদেশি

কলকাতায় সড়ক দুর্ঘটনা

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৮ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম

ভারতের চেন্নাইয়ে চোখের চিকিৎসা করাতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ঝিনাইদহের মইনুল আলম সোহাগ (৩৫)। গ্রামীণফোনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা সোহাগ ঝিনাইদহ পৌর এলাকার ভুটিয়ারগাতি গ্রামের এড. খলিলুর রহমানের ছেলে।

শুক্রবার রাত আনুমানিক পৌনে দুইটার দিকে কলকাতার শেক্সপিয়ার সরণিতে মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় সোহাগসহ আরো এক বাংলাদেশি নারী নিহত হন। নিহত সোহাগের নিকটাত্মীয় নাসিরুল ইসলাম বুলু ও চাচাতো ভাই কাজী সজিব জানান, শুক্রবার রাত একটা ৫০ মিনিটের দিকে কলকাতার শেক্সপিয়ার সরণি ক্রসিংয়ের সামনে দুটি প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় প্রাইভেট কার ছিটকে পাশের ট্রাফিক বিটে ধাক্কা খায়। বৃষ্টির কারণে সেখানে অপেক্ষা করছিলেন সোহাগ ও ফারহানা ইসলাম তানিয়া নামে দুই বাংলাদেশি। একটি প্রাইভেট কার তাদের পিষ্ট করলে দু’জনই গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে কলকাতার পিজি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাদের মৃত ঘোষণা করেন। নিহত সোহাগ ঢাকায় বসবাস করতেন। চাকরির কারণে তিনি ঝিনাইদহে খুব কম আসতেন।

এ ব্যাপারে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে শেক্সপিয়ার থানা পুলিশ। এদিকে কলকাতায় দু’জন বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যুর ঘটনায় বাংলাদেশের কলকাতাস্থ উপহাইকমিশনের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করে লাশ দ্রুত বাংলাদেশে পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু করেছেন। দুর্ঘটনায় নিহত অপর নারী ঢাকার লালমাটিয়া এলাকার জাকির হোসেন সড়কের মো. আমিরুল ইসলামের মেয়ে ফারহানা ইসলাম তানিয়া।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ