Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৭, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

কলাপাড়ায় মুরগি চুরির প্রতিবাদ করায় গৃহবধূকে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষ

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ আগস্ট, ২০১৯, ৮:৩১ পিএম

কলাপাড়ায় মুরগী চুরির প্রতিবাদ করায় ছকিনা বেগম (৪২) নামের এক গৃহবধূর বাম হাত পিটিয়ে ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা। এসময় মাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে পুত্র রাকিব (১৮) কে পিটিয়ে আহত করা হয়। উপজেলার ডালবুগঞ্জ ইউনিয়নের ফুলবুনিয়া গ্রামে ঈদুল-আযহার তৃতীয় দিন দুপুর সাড়ে বারটার এ ঘটনায় মা ছেলেকে উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করেছে স্বজনরা। বর্তমানে আহত ঐ গৃহবধূ ভাঙ্গা হাত নিয়ে হাসপাতালের শয্যায় যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন।


ছকিনা বেগম জানান, প্রতিবেশী নুর-আলম মোড়ল’র স্ত্রী হালিমা আমার মুরগী চুরি করলে স্থানীয়রাসহ আমি তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলি। পরবর্তীতে আমি মামলা করতে চাইলে স্থানীয়ভাবে শালিশ বৈঠকের পর আমাকে পাঁচশত টাকা ধার্য করে দেয়া হয়। তিনি আরো জানান, টাকা দেয়ার কিছিুদিন পরে সুলতান মোড়ল, হামিম মোড়ল, নুর-আলম মোড়লসহ আরো ৪/৫ জন মিলে টাকার শোধ নিতে আমার ছেলেসহ আমাকে পিটিয়ে আহত করে। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত হামিম মোড়লের সাথে কথা হলে তিনি জানান, মুরগী চুরির বিষয়ে আমি জানিনা, তবে মারামারির যে ঘটনা ঘটেছে সে বিষয়ে স্থানীয় পর্যায়ে শালিশ মিমাংশার চেষ্টা চলছে। সংশ্লিস্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নুরজামান জানান, ঘটনার সময় মারামারি থামাতে গিয়ে আমি নিজেই আঘাত প্রাপ্ত হয়েছি। পরবর্তীতে কি হয়েছে আমার জানা নাই। মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহেল আহম্মেদ জানান, আমাদের কাছে কেউ অভিযোগ নিয়ে আসেনি, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রতিবাদ

১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ