Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০, ৩০ আষাঢ় ১৪২৭, ২২ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

কাশ্মীরের জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার খর্ব হয়েছে: অমর্ত্য সেন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ আগস্ট, ২০১৯, ১:৩০ পিএম

ভারতের সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন দেশটির নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. অমর্ত্য সেন।

রাজ্যটি ভেঙে জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখ নামে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গঠন করায় কাশ্মীরের জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার খর্ব হয়েছে বলে মনে করেন তিনি। খবর এনডিটিভির।

বিশেষ মযার্দা বাতিলের পর থেকে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে কাশ্মীরে। পৃথিবী থেকে যেন এক রকম বিচ্ছিন্ন ভূখণ্ড।

সোমবার ভারতীয় গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলে সরকারি সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন নোবেলজয়ী এ অর্থনীতিবিদ। তিনি বলেন, বিশেষ মর্যাদা বাতিলে কাশ্মীরের জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার খর্ব হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে পুরো বিশ্বে বৃহৎ গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে ভারতের সম্মান ম্লান হয়েছে বলেও মনে করেন তিনি।

কাশ্মীরে জমি কেনা প্রসঙ্গে অমর্ত্য সেন বলেন, এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়ার এখতিয়ার কাশ্মীরের বাসিন্দাদের। এ ছাড়া জম্মু-কাশ্মীরের রাজনৈতিক নেতাদের গ্রেফতার করায় সরকারের কঠোর সমালোচনা করেন অর্মত্য সেন।

গত ৫ আগস্ট ৩৭০ ধারা বাতিলের দিন তিনেক আগে থেকেই কাশ্মীরে ইন্টারনেট এবং ফোন পরিষেবা বন্ধ করে দেয়া হয়।

এ ছাড়া গোটা রাজ্যজুড়ে ছিল কারফিউ, স্তব্ধ হয়ে পড়ে থাকে সেখানকার জনজীবন। সর্বত্র ভারতীয় সেনাদের টহল। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের গুলিতে অনেকে নিহত হন বলেও জানা গেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কাশ্মীর


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ