Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

রাজপথে গ্রেনেড হামলার প্রতিচ্ছবি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম


২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা ঘটনার প্রতিচ্ছবি তৈরি করে প্রতিবাদ ও খুনিদের ফাঁসির দাবিতে এই আয়োজন করে বাংলাদেশ আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরাম। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ কর্মসূচী পালন করা হয়।

কর্মসূচীতে দেখা যায়, প্রেস ক্লাবের সামনের রাস্তায় হঠাৎ দেখা গেলো কিছু মানুষ রক্তাক্ত ও ছিন্নভিন্ন অবস্থায় পড়ে আছে। চারদিকে রক্তের ছড়াছড়ি। দেখে বোঝার উপায় নেই, এটি প্রতিকী নাকি সত্যি কোনও ঘটনা। আয়োজকদের মতে, এটা আসলে ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার প্রতিচ্ছবি। সেই ন্যক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদ জানাতেই এই আয়োজন।

প্রতিবাদ কর্মসূচি থেকে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শেখ শাহিনুর রহমান উজ্জ্বল বলেন, ২০০১ সালের নির্বাচনের পর থেকে সারাদেশে বিএনপি-জামায়াতসহ ৭১ সালের স্বাধীনতাবিরোধীরা বাংলাদেশে যে হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল, সেই হত্যাযজ্ঞের সর্বশেষ আক্রমণ ছিল ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে গ্রেনেড হামলার ঘটনা। ওই হামলার উদ্দেশ্য ছিল বঙ্গবন্ধুর পরিবারসহ আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের নিশ্চিহ্ন করে দেওয়া।

তিনি বলেন, আমি সরকারের কাছে দাবি জানিয়ে বলছি, এই ঘটনার নেপথ্যে যারা কলকাঠি নেড়েছিল, যারা গ্রেনেড আমদানি করেছিল, যারা প্রশিক্ষণ দিয়েছিল, যারা বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যা করে দেশকে আবারও পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিল, সেই খুনিরা যে দেশে বা যে জঙ্গলে থাকুক না কেন, তাদের ধরে এনে বাংলাদেশের মাটিতে ফাঁসি কার্যকর করতে হবে।

প্রতিবাদ কর্মসূচিতে সংগঠনের মুখপাত্র ও সহ-সভাপতি মো. মুজিবর রহমান, সহ-সভাপতি রীনা আমিন, সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক আরজু খান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাবিবুর রহমান রোমেল এবং সাংস্কৃতিক সম্পাদক ফারজানা শারমিন লোপা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গ্রেনেড

২১ আগস্ট, ২০১৯
২৮ নভেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন