Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

শেখ হাসিনা হত্যা চেষ্টা মামলার আপিল গৃহীত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (তৎকালিন বিরোধীদলীয় নেতা)-কে ঈশ্বরদীতে হত্যা চেষ্টা মামলায় সাজাপ্রাপ্তদের আপিল গ্রহণ করেছেন হাইকোর্ট। গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস এবং বিচারপতি এ এস এম আব্দুল মোবিনের ডিভিশন বেঞ্চ আপিল গ্রহণ করেন।
অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয় সূত্র জানায়, ১৯৯৪ সালে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা শেখ হাসিনা পাবনার ঈশ্বরদী ভ্রমণে যান। এ সময় তাকে বহনকারী ট্রেনে গুলি চালানো হয়। ঘটনার ২৪ বছর পর গত ৩ জুলাই মামলার রায় হয়। রায়ে পাবনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রোস্তম আলী ৯ জনকে মৃত্যুদন্ড দেন। আসামিদের মধ্যে ২৫ জনের যাবজ্জীবন, ১৩ জনের ১০ বছর করে সশ্রম কারাদন্ড দেন। একই সঙ্গে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তদের ৩ লাখ টাকা করে জরিমানা এবং ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্তদের ১ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়। গত ২১ জুলাই এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন দন্ডিতরা। মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্তরা হলেন এ কে এম আক্তারুজ্জামান, মো. জাকারিয়া পিন্টু, মোখলেছুর রহমান বাবলু, রেজাউল করিম শাহীন, শহীদুল ইসলাম অটল, আজিজুর রহমান ফড়িং, শ্যামল, মাহাবুবুর রহমান পলাশ ও শামসুল আলম। এর মধ্যে ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া পিন্টু পলাতক রয়েছেন।
এজাহারের তথ্য মতে, ১৯৯৪ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর খুলনা থেকে ট্রেনে ঈশ্বরদী হয়ে সৈয়দপুরের দলীয় জনসংযোগে যান শেখ হাসিনা। তাকে বহনকারী ট্রেনটি ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশনে প্রবেশের মুহূর্তে শেখ হাসিনার কামরা লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে দুর্বৃত্তরা। স্টেশনে যাত্রাবিরতি করলে আবারও ট্রেনটিতে হামলা চালানো হয়। এ ঘটনায় পরবর্তীতে দলীয় কর্মসূচি সংক্ষিপ্ত করে শেখ হাসিনা দ্রুত ঈশ্বরদী ত্যাগ করেন। পরে ঈশ্বরদী রেলওয়ে জিআরপি থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলায় তৎকালীন ছাত্রদল নেতা ও বর্তমানে ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া পিন্টুসহ ৭ জনকে আসামি করা হয়। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পর মামলাটি পুনঃতদন্ত করে চার্জশিট দেয় সিআইডি। তদন্ত শেষে নতুনভাবে স্থানীয় বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীসহ ৫২ জনকে আসামি করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন