Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

বাধ্যতামূলক হচ্ছে কর্মমুখী শিক্ষা, বই সম্পাদন চলছে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ আগস্ট, ২০১৯, ৭:২৬ পিএম

স্কুল ও মাদরাসায় ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত কর্মমুখী প্রকৌশল শিক্ষা ২০২১ সাল থেকে বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। এ লক্ষ্যে ইতোমধ্যে পাঠ্যক্রম (সিলেবাস) প্রণয়ন সম্পন্ন হয়েছে। এর আওতায় বই সম্পাদনের কাজও চলছে। এছাড়া নবম-দশম শ্রেণিতে কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক করার প্রক্রিয়ায়ও শুরু হয়েছে। বুধবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এই তথ্য জানানো হয়েছে।
সংসদীয় কমিটির গত বৈঠকে ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক করার সুপারিশ করা হয়। বুধবার মন্ত্রণালয় সেই সুপারিশ বাস্তবায়ন অগ্রগতি কমিটিকে জানিয়েছে। বৈঠকের কার্যপত্র থেকে জানা যায়, ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত সাধারণ শিক্ষা ব্যবস্থায় কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক করার জন্য কর্মমুখী প্রকৌশল শিক্ষা ১, ২ ও ৩ নামক তিনটি বই প্রণয়নের জন্য সিলেবাস তৈরির কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এখন চলছে বই সম্পাদনের কাজ।
এছাড়া নবম-দশম শ্রেণির সব শাখায় (বিজ্ঞান/মানবিক/ব্যবসায় শিক্ষা) কারিগরি শিক্ষার বই বাধ্যতামূলক করার বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের নিয়ে ওয়ার্কশপ করা হয়েছে। মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত প্রাক-বৃত্তিমূলক ও বৃত্তিমূলক কোর্স চালুর জন্য সম্ভাব্য বাজেট প্রণয়ন করা হয়েছে, যা চূড়ান্তকরণের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।
বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি আফছারুল আমীন বলেন, আমরা আগের বৈঠকে সাধারণ শিক্ষায় কর্মমুখী শিক্ষা চালুর সুপারিশ করেছিলাম। আজকের বৈঠকে মন্ত্রণালয় থেকে তার অগ্রগতি জানানো হয়েছে। তারা জানিয়েছে, ২০২১ সাল থেকে ষষ্ঠ, সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণিতে কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক করা হবে।
এদিকে সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রতিটি শ্রেণিতে প্রতি বছরের জন্য নির্ধারিত সিলেবাস শ্রেণি কার্যক্রমের মাধ্যমে নির্দিষ্ট সময়ে শেষ হয় কিনা তা নজরদারিতে রাখার সুপারিশ করেছে কমিটি। আফছারুল আমীনের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, একেএম শাহাজাহান কামাল, ফজলে হোসেন বাদশা, আবদুস সোবহান মিয়া এবং গোলাম কিবরিয়া টিপু অংশ গ্রহণ করেন।



 

Show all comments
  • মোঃ আককাছ আলী মোল্লা Ii ২১ আগস্ট, ২০১৯, ১০:৩৬ পিএম says : 0
    এইকথা আমিও তিন বছরজ আগে আমার ম্যানেজার স্যারের সাথে আলোচনা করেছি।এই রকম একটা শিক্ষা কার্যক্রম চালু হলে দেশের অর্থনৈতিক উন্নতি হবে।ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রীকে।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ আককাছ আলী মোল্লা Ii ২১ আগস্ট, ২০১৯, ১০:৩৭ পিএম says : 0
    এইকথা আমিও তিন বছরজ আগে আমার ম্যানেজার স্যারের সাথে আলোচনা করেছি।এই রকম একটা শিক্ষা কার্যক্রম চালু হলে দেশের অর্থনৈতিক উন্নতি হবে।ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রীকে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ