Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৮ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

ভারতে সাইবার হামলা চীনের, ৬৮ লাখ নথি চুরি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ আগস্ট, ২০১৯, ৮:০২ পিএম

নতুন বিপদ ভারতের আকাশে। বৃহস্পতিবার মার্কিন সাইবার সিকিওরিটি ফার্ম ফায়ার আই জানিয়েছে এক ভয়ঙ্কর তথ্য।

সংস্থাটি জানিয়েছে, ভারতীয় স্বাস্থ্যক্ষেত্র থেকে চুরি হয়ে গেছে ৬৮ লক্ষ তথ্য। এর মধ্যে রয়েছে রোগী ও চিকিৎসক উভয়ের তথ্যই। একটি নামকরা ভারতীয় সংস্থার ওয়েবসাইট হ্যাক করে এই চুরি হয়েছে বলে জানিয়েছে ওই মার্কিন ওই সংস্থা।

তবে কোন ভারতীয় স্বাস্থ্যসংস্থার ওয়েবসাইট হ্যাক করা হয়েছে, তা জানানো হয়নি।
ফায়ার আই জানিয়েছে, এই হ্যাকাররা ভারত থেকে তথ্য চুরি করে মোটা দামে তা বিক্রি করছে চীনের কাছে। এসব হ্যাকারদের বেশিরভাগই চীনের নাগরিক বলে জানা গেছে। বিশ্বের অন্যান্য দেশের কাছে এই তথ্য বিক্রি করা হবে। এমনকি চোরাপথে এই হ্যাকাররা ভারতের বাজারেও এসব তথ্য বিক্রি করতে পারে।

ফেব্রুয়ারি মাসে “fallensky519” নামে একটি হ্যাকার গ্রুপ ভারতীয় স্বাস্থ্য সংস্থার কাছ থেকে ৬৮ লাখ তথ্য চুরি করে।

সংবাদসংস্থা আইএএনএস জানিয়েছে, এই তথ্যে রয়েছে রোগী ও চিকিৎসকদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। শুধু ফেব্রুয়ারি মাসেই নয়, ২০১৮ সালের ১ অক্টোবর থেকে ২০১৯ সালের ৩১ মার্চের মধ্যে একাধিকবার সাইবার হামলার ঘটনা ঘটে। এই ইস্যুতে ভারতকে আগেই সতর্ক করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে ফায়ার আই। ২ হাজার ডলারে এক একটি তথ্য বিক্রি করা হয়েছে বিশ্বের বাজারে।

ফায়ার আই জানায়, তারা কড়া নজর রেখেছিল এ বিষয়ে। তবে হ্যাকিং ঠেকানো যায়নি। এর আগে চলতি বছরের প্রথম পাঁচ মাসের মধ্যেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের ২৫ ওয়েবসাইট হ্যাক হয়েছে বলে জানিয়েছিল ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

কেন্দ্রীয় ইলেকট্রনিক্স ও আইটি মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ রাজ্যসভায় লিখিতভাবে জানিয়েছিলেন, ইন্ডিয়ান কম্পিউটার এমারজেন্সি রেসপন্স টিমের (CERT-In) সূত্র অনুযায়ী, মোট ১৯৯, ১৭২, ১১০ এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের ২৫ ওয়েবসাইট হ্যাক করা হয়েছে যথাক্রমে ২০১৬, ২০১৭, ২০১৮ এবং ২০১৯-এর মে পর্যন্ত।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত-চীন

৯ অক্টোবর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন