Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

ঢাকা ও পঞ্চগড়ে মানববন্ধন

মাদরাসাছাত্রী আসমা হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০২ এএম

ঢাকার কমলাপুরে ট্রেনের পরিত্যক্ত বগিতে হত্যার শিকার মাদরাসা ছাত্রী আসমা খাতুনের ঘাতকদের বিচার দাবিতে ঢাকা ও পঞ্চগড়ে পৃথক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ‘ঢাকাস্থ পঞ্চগড়বাসী’ এবং পঞ্চগড়ে ‘বাঁচাও পঞ্চগড়’ নামের দুটি সংগঠনের ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

ঢাকায় মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ট্রেনের বগির ভেতরে গণধর্ষণের পর আসমাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত সন্দেহভাজন বাঁধনসহ হত্যাকারী বা ধর্ষকদের কাউকে গ্রেফতারের সুস্পষ্ট কোন তথ্য জানা যায়নি। তারা দোষীদের গ্রেফতারসহ কঠিন শাস্তির দাবি জানান। মানববন্ধনে ঢাকাস্থ পঞ্চগড়বাসীর সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন সরকার বলেন, এর আগে দিনাজপুরের মেয়ে ইয়াসমিন হত্যার বিচারের দাবিতে গোটা উত্তরবঙ্গ যেভাবে ফুঁসে উঠেছিল, আসমা হত্যা এবং ধর্ষণের বিচার না হলে আবারও ফুঁসে উঠবে উত্তরবঙ্গ। মানববন্ধনে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, তসলিমা প্রধান, ডা. আহসান ফিরোজ, আব্দুস সালাম, ড. রনিক শামসুজ্জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

তেঁতুলিয়া (পঞ্চগড়) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, গতকাল সকাল ১১টায় পঞ্চগড় শহরের চৌরঙ্গী মোড়ে ঢাকা-পঞ্চগড় মহাসড়কে ‘বাঁচাও পঞ্চগড়’ নামে একটি সামাজিক সংগঠন জড়িতদের গ্রেফতারসহ হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন করে। ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে নিহত আসমার বাবা-মা, সহপাঠী, প্রতিবেশী, বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ নেন।
জুলেখা বেগম বলেন, পার্শ্ববর্তী হেলিপ্যাড এলাকার বাঁধন নামে এক যুবক তাকে ফুসলিয়ে নিয়ে গেছে। তাকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে। তারা হত্যায় জড়িতদের কঠিন শাস্তির দাবি জানান। মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে পঞ্চগড় সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্বাস আলী, পঞ্চগড় প্রেস ক্লাবের সভাপতি সফিকুল আলম, নিহত আসমা আক্তারের বাবা আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ আসমা হত্যার বিচার দাবি করেন।

এদিকে, বৃহস্পতিবার রাতে আসমা হত্যা মামলার প্রধান অভিযুক্ত আসামি মারুফ হাসান বাঁধনকে পুলিশ আটক করেছে। পঞ্চগড় পুলিশ তাকে আটক করার পর রেল পুলিশে হস্তান্তর করেছে বলে জানা গেছে। তবে তাকে কোথা থেকে আটক করা হয়েছে তা প্রকাশ করেনি পুলিশ।
পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাঈমুল হাছান বলেন, ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশনের একটি পরিত্যাক্ত বগি থেকে আসমার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আসমার চাচা কমলাপুর রেলওয়ে থানায় একটি হত্যা ও ধর্ষণের মামলা করেছেন। মামলাটি বর্তমানে চলমান। পুলিশ ঘটনা তদন্তসহ রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা করছে।

উল্লেখ্য, নিহত আসমা পঞ্চগড় সদরের কনপাড়া গ্রামের ভ্যানচালক আব্দুর রাজ্জাকের দ্বিতীয় মেয়ে। সে স্থানীয় খান বাহাদুর মাদরাসা থেকে এবার দাখিল পাস করেছে। পরিবারের আর্থিক অভাব থাকায় তাকে আর কলেজে ভর্তি করা হয়নি বলে পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছে।
স্বজন ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আসমার সাথে তার এক সময়ের সহপাঠী একই এলাকার টায়ার ভুট্টুর ছেলে বাঁধনের সাথে দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। গত রোববার সকাল ১০টায় দু’জন বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাদের পাওয়া যায়নি। পরে সোমবার সকালে ঢাকা কমলাপুর রেলস্টেশনে ময়মনসিংহগামী বলাকা কমিউটার ট্রেনের একটি পরিত্যাক্ত বগি থেকে আসমার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় সোমবার আসমার চাচা রাজু ইসলাম বাদী হয়ে বাঁধনকে প্রধান আসামি করে কমলাপুর রেলওয়ে থানায় হত্যা ও ধর্ষণের একটি মামলা দায়ের করেন। স্থানীয়দের সন্দেহ, কমলাপুর স্টেশনে দু’জনে কোনও চক্রের হাতে পড়ে এবং আসমা খুন হয়। অথবা বাঁধনের সঙ্গীরা আসমাকে খুন করেছে।
##



 

Show all comments
  • Yourchoice51 ২৪ আগস্ট, ২০১৯, ৯:৫২ এএম says : 0
    The murder must be given capital punishment. But I'm also disturbed to know that the murdered lady had a love affair (apparently without marriage) with the alleged murderer for long time. Can anyone provide any evidence from Islamic law that this kind of affair is permitted in Islam?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মানববন্ধন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ