Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৬ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

অমিতের ডাকে সাড়া দিলেন না মমতা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ আগস্ট, ২০১৯, ৩:৪৩ পিএম

এর আগে এক দেশ, এক নির্বাচন নীতি নিয়ে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর ডাকা বৈঠকে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। এবার দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নেতৃত্বে আন্তঃরাজ্য নকশাল দমন বৈঠকেও যোগ দিলেন না পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দেশের ১০টি নকশাল (মাওবাদী) অধ্যুষিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের নিয়ে সোমবার সকালে দিল্লিতে এই বৈঠক হয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবর্তে বাংলার হয়ে সেখানে প্রতিনিধিত্ব করেন ডিজিপি বীরেন্দ্র এবং মুখ্যসচিব মলয় দে।

ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, তিন মাস হলো কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন অমিত শাহ। ক্ষমতায় এসেই কাশ্মীর নিয়ে ‘গুরুত্বপূর্ণ’ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন তিনি। ৩৭০ ধারা বাতিলের পর উপত্যকার বিশেষ মর্যাদা খর্ব হয়েছে। গঠিত হয়েছে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ দুটি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল। এই পদক্ষেপ নিয়ে যখন শাসক দলের বিরুদ্ধে নানা সমালোচনা চলছে- তার মধ্যেই ঝাড়খণ্ড, ছত্তিসগড়, উড়িষ্যা, পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, মহারাষ্ট্র, তেলেঙ্গনা, অন্ধ্রপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ এবং উত্তরপ্রদেশ এই ১০ নকশাল প্রভাবিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবং শীর্ষস্থানীয় পুলিশ ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠক ডেকেছিলেন অমিত শাহ।

নকশাল দমনে রাজ্যগুলি কী কী পদক্ষেপ নিয়েছে এবং মাওবাদী অধ্যুষিত এলাকাগুলিতে কি কি নতুন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, তা পর্যালোচনা করে দেখতেই এই বৈঠক ডাকা হয়েছিল। কিন্তু তাতে যোগ দেননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এর আগে, একাধিক ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে বিরোধ বেধেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। প্রকাশ্যেই নরেন্দ্র মোদি সরকারের একাধিক সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন তিনি। কেন্দ্রের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রাখতেই বার বার তিনি বৈঠকে যাওয়া থেকে বিরত থাকছেন বলে মত বিশেষজ্ঞ মহলের। যদিও নবান্নের পক্ষ থেকে এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একা নন, অমিত শাহের ডাকা বৈঠকে যোগ দেননি তেলেঙ্গনার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও এবং মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়ণবীস।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মমতা

৩১ মার্চ, ২০২০
২০ ডিসেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ