Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

চট্টগ্রাম বন্দরের নিরাপত্তায় সন্তুষ্ট মার্কিন কোস্টগার্ডের প্রতিনিধিরা

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৭ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম

 চট্টগ্রাম বন্দরের সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থায় সন্তোষ প্রকাশ করে পাঁচ দফা সুপারিশ করেছে আমেরিকান কোস্টগার্ডের তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল। বন্দরের নিরাপত্তা বিশ্বমানে উন্নীত করতে সাইবার নিরাপত্তা, পণ্যবাহী কন্টেইনার স্ক্যানিং এবং বন্দরের ভেতরে পণ্য খালাস বন্ধের উপর জোর দেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। আইএসপিএস কোড বাস্তবায়নে দেশের প্রধান সমুদ্রবন্দরের নিরাপত্তা কার্যক্রম তদারকিতে আসেন আমেরিকান কোস্টগার্ডের তিন সদস্য।
গতকাল সোমবার দ্বিতীয় দিনের মতো তারা বন্দরের সার্বিক নিরাপত্তা খুঁটিনাটি পর্যবেক্ষণ করেন। এরপর তারা চট্টগ্রাম বন্দর ত্যাগ করেন বলে জানান বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব মো. ওমর ফারুক। তিনি ইনকিলাবকে বলেন, মার্কিন কোস্টগার্ড কর্মকর্তারা বন্দরের সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এর পাশাপাশি তারা বিশ্বমানের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কিছু পরামর্শও দিয়েছেন। বন্দর কর্তৃপক্ষ আইএসপিএস কোড অনুযায়ী নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে যেসব ব্যবস্থা নিয়েছেন তা পর্যবেক্ষণ করেন তারা।
সফরের প্রথম দিনে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল জুলফিকার আজিজ, সদস্য (হারবার ও মেরিন) কমডোর খন্দকার আক্তার হোসেনসহ বন্দরের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সাথে পৃথক পৃথক বৈঠক করেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। বন্দরের বিভিন্ন স্থাপনা ঘুরে দেখেন তারা। গতকাল বন্দরে একটি প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশ নেন তারা। ক্রিস্টিনা জোন্সের নেতৃত্বে আসা ইউএস কোস্টগার্ডের তিন সদস্য বন্দরের নিরাপত্তা বিষয়ক বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।
জাতিসংঘের অঙ্গ সংস্থা আইএমওর পক্ষে এর আগে চট্টগ্রাম বন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থার দুর্বলতাগুলো চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা (আইএসপিএস কোড) নেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছিল। তবে এসব নির্দেশনার বেশিরভাগ বাস্তবায়নে বন্দর কর্তৃপক্ষ উদ্যোগ নিলেও বেকায়দায় রয়েছে বন্দরের বাইরে ডেলিভারি কার্যক্রম শুরু নিয়ে। প্রতিনিধি দলের সদস্যরা বন্দরের অভ্যন্তর থেকে ডেলিভারি কার্যক্রম বাইরে সরিয়ে নেয়ার জোর সুপারিশ করেছেন। কারণ ভেতরে পণ্য ডেলিভারি হওয়ায় প্রতিদিন হাজার হাজার চালক ও সহকারী বন্দরে প্রবেশ করে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চট্টগ্রাম বন্দর


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ