Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পাঁচ গুণ মুনাফা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ২৯ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০০ এএম

দেশীয় ও বৈদেশিক মুদ্রার সংকট, ডলারের দর বৃদ্ধিসহ নানা কারণে মুনাফা বেড়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৪ হাজার ৪৬১ কোটি টাকা মুনাফা করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক; যা আগের অর্থবছরের চেয়ে পাঁচগুণের বেশি। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে কেন্দ্রীয় ব্যাংক মুনাফা করেছিল ৭৯২ কোটি টাকা।

গত মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পরিষদের সভায় ২০১৮-১৯ অর্থবছরের আর্থিক বিবরণী অনুমোদন করা হয়। কেন্দ্রীয় ব্যাংক সংশ্লিষ্টরা জানান, বৈদেশিক মুদ্রার চাহিদার তুলনায় বাজারে সরাবরাহ কম থাকায় গেল অর্থবছরে ব্যাংকগুলোর কাছে ২৩৩ কোটি ৯০ লাখ ডলার বিক্রি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এছাড়া বর্তমানে ৩২ বিলিয়ন ডলারের বেশি রিজার্ভ রয়েছে। এসব খাত থেকে ভালো মুনাফা করেছে নিয়ন্ত্রণকারী এ সংস্থা। পাশাপাশি বৈদেশিক মুদ্রার দাম বেড়ে যাওয়ায় তা সমন্বয় করা হয়েছে।

এদিকে গত অর্থবছরের ডলার বিক্রির করে বাজার থেকে প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকা ওঠানো হয়। এতে করে স্থানীয় বাজারে টাকার সংকট সৃষ্টি হয়। এ অবস্থয় ব্যাংকগুলো ডলার কেনার পাশাপাশি রেপো ও বিশেষ তারল্য সহায়তার মাধ্যমে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে বিশাল অংকের অর্থ ধার করে। এসব ধারের বিপরীতে ৬ শতাংশ সুদ আদায় করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংক বিভিন্ন বৈদেশিক মুদ্রার যে রিজার্ভ রেখেছে, ইউরো ছাড়া বেশিরভাগ মুদ্রার দর বেড়েছে। সব মিলিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুনাফা বেড়েছে।

আর্থিক বিবরণীর তথ্য বলছে, বাংলাদেশ ব্যাংক ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে চার হাজার ৪৬১ কোটি টাকা মুনাফা করেছে। এক বছরের ব্যবধানে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুনাফা বেড়েছে তিন হাজার ৬৬৯ কোটি টাকা যা ৪৬৩ শতাংশ। সাম্প্রতিক কোনো বছরে এতো মুনাফা হয়নি। ২০১৭-১৮ অর্থবছর বাংলাদেশ ব্যাংক বাজারে ২৩১ কোটি ১০ লাখ ডলার বিক্রি করেছিল। ওই বছর মুনাফা হয়েছে মাত্র ৭৯২ কোটি টাকা। এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুনাফা বাড়ায় কর্মীদের উৎসাহ বোনাস বাড়ানো হয়েছে। পরিচালনা পরিষদের বৈঠক থেকে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য প্রত্যেক কর্মকর্তা-কর্মচারীর সাড়ে চার মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ উৎসাহ বোনাস দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চার মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ বোনাস দেওয়া হয়েছিল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কেন্দ্রীয় ব্যাংক


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ