Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

বেড়া দেওয়া নিয়ে আ. লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ নিহত ১, আহত ৯

জয়পুরহাট জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩১ আগস্ট, ২০১৯, ১১:৫২ এএম | আপডেট : ১:৩১ পিএম, ৩১ আগস্ট, ২০১৯

জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার কুসুমসারা এলাকায় স্কুলের মাঠে বেড়া দেওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে জড়িয়েছে আওয়ামী লীগের দুটি পক্ষ। এতে একজন নিহত এবং অন্তত ০৯ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার রাতে কুসুমসারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম সামছদ্দিন। তিনি কালাই উপজেলার কুসুমসারা গ্রামের মছির উদ্দিনের ছেলে। সংঘর্ষের ঘটনার পর শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেলে তার মৃত্যু হয়।

আহতদের মধ্যে কয়েকজনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন- কালাই উপজেলার কুসুমসারা গ্রামের তছির উদ্দিনের ছেলে আব্দুর রশিদ, করিম হোসেনের ছেলে নাছির হোসেন এবং আব্দুর রশিদের ছেলে রাসুল। আহতরা বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি চিকিৎসা কেন্দ্র থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

কালাই থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল মালেক সংঘর্ষের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও কালাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মিনফুজুর রহমান মিলনের সমর্থকরা কুসুমসারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ ঘেরাওয়ের জন্য বেড়া দিচ্ছিল। এ সময় আওয়ামী লীগ নেতা মাত্রায় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শওকত হাবিব তালুকদার লজিকের সমর্থকরা বাধা দিলে উভয়পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে অন্তত ১০ জন আহত হন।

গুরুতর আহতদের জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের মধ্যে সামছদ্দিনের অবস্থার অবনতি হলে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়। সামছদ্দিন কোন পক্ষের লোক এখনও তা জানা যায়নি।

তবে সংঘর্ষের ব্যাপারে জানতে আ.লীগ নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাদের পাওয়া যায়নি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সংঘর্ষ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ