Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

বলিউড অভিনেতার বাড়িতে রান্নার কাজ করতেন রানু!

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩১ আগস্ট, ২০১৯, ১:৪৬ পিএম

রানাঘাট স্টেশনের সেই রানু মণ্ডল বর্তমানে একজন সেলিব্রিটি। রেল স্টেশনে গান গেয়ে দিন কাটত রানু মণ্ডলের। পথচারীদের দিয়ে যাওয়া টাকাতেই তাঁর প্রয়োজন মিটত। গান গেয়ে রাতারাতি সেলিব্রেটি বনে যান তিনি। মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায় সে গান। এই রকম ঘটনা সিনেমাতে দেখা গেলেও বাস্তবে কমই দেখা যায়।

এরপর রানাঘাট থেকে সোজা মুম্বাইতে পাড়ি জমান রানু। মুম্বাইয়ের সঙ্গে রানুর সম্পর্ক নতুন নয়? বহু বছর আগে থেকেই মুম্বাই থাকতেন তিনি। কাজ করতেন অভিনেতা ফিরোজ খানের বাড়িতে।

সম্প্রতি এই খবর গণমাধ্যমে ফাঁস হয়েছে। জানা গেছে, কয়েক বছর আগে অভিনেতা ও চলচ্চিত্র নির্দেশক ফিরোজ খানের বাড়িতে রান্না করার কাজ করতেন রানাঘাটের রানু মণ্ডল। রান্নার পাশাপাশি ঘর ঝাড়পোছ করার কাজও করতেন তিনি। ওই গণমাধ্যমে এও প্রকাশ পেয়েছে, ছেলে ফারদিন খানকে দেখভাল করার জন্য রানুকেই বেছে নিয়েছিলেন ফিরোজ খান। এছাড়া ফিরোজের ভাই সঞ্জয় খানকেও কাজকর্মে সাহায্য করতেন রানু।

কিন্তু হঠাৎ মুম্বাই কেন গিয়েছিলেন রানু? সোশ্যাল মিডিয়ার 'সুরসাম্রাজ্ঞী' জানিয়েছেন, কৃষ্ণনগরে থাকতেন তিনি। রানাঘাটে ছিল তার মাসির বাড়ি। বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে তিনি মুম্বাই যান। তখনই ফিরোজ খানের বাড়িতে রান্নাবান্নার কাজ শুরু করেন। পরে মানসিক অবসাদে ভুগতে থাকেন তিনি। ফিরে আসেন রানাঘাটেই।

এখন রানু আবার ফিরেছেন তাঁর পুরনো কর্মস্থল মুম্বাইয়ে। জানা গেছে, জনপ্রিয় রিয়ালিটি শো 'বিগ বস'-এও দেখা যাবে তাঁকে। শোয়ের সঞ্চালক খোদ সালমান খান নাকি রানুকে 'বিগ বস'-এ দেখার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

প্রথমে জনপ্রিয় একটি টেলিভিশন শোয়ে হাজির হন তিনি। এরপর সেখান থেকে সোজা হিমেশ রেশমিয়ার স্টুডিয়োতে হাজির হন। ‘তেরি মেরি’ গান গেয়ে তাক লাগিয়ে দেন বিশ্বকে। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে রাস্তা-ঘাট পাড়া-মহল্লার আড্ডায় রানুদি মন্ডলের চর্চা এখন সর্বত্র।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঢালিউড

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন