Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

বানসালের বিশ্বাস সিঙ্গাপুরে ভালো করবে মেয়েরা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭:৪৬ পিএম

বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা হকি দলের ভারতীয় উপদেষ্টা কোচ একে বানসালের বিশ্বাস সিঙ্গাপুরে ভালো করবে বাংলাদেশের মেয়েরা। রোববার দুপুরে মওলানা ভাসানী জাতীয় হকি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা দল ঘোষণা ও জার্সি উন্মোচন অনুষ্ঠানে তিনি বলেন,‘আমার ধারণা ভুল প্রমাণ করেছে বাংলাদেশ দল। দিল্লী থেকে সাই অ্যাকাডেমির দলটিকে ঢাকায় আনার পিছনে অনেক কারণ ছিল। তাদের বিপক্ষে ৬টি ম্যাচ খেলার পর অনেক কিছু পরখ করতে পেরেছি। আমি কোন গোলের হিসেব করছি না। সাই অ্যাকাডেমির বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের মেয়েদেও ব্যাক্তিগত পারফরমেন্স বিচার করে এবং প্রাকটিসে তাদের কলা কৌশল বিবেচনায় নিয়ে চুড়ান্ত বাছাই করেছি। আমার বিশ্বাস সিঙ্গাপুরে ভালো করবে মেয়েরা।’

আগামী ৯ সেপ্টেম্বর সিঙ্গাপুরে শুরু হচ্ছে এয়ার এশিয়া ওমেন্স জুনিয়র এএইচএফ কাপ হকি টুর্নামেন্ট। চলবে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। এ আসরে বাংলাদেশ বয়সভিত্তিক জাতীয় মহিলা দল অংশ নিচ্ছে। টূর্ণামেন্টে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক সিঙ্গাপুর, হংকং চায়না, শ্রীলঙ্কা, চায়নিজ তাইপে ও উজবেকিস্তান। উদ্বোধনী দিনেই মাঠে নামবে বাংলাদেশের মেয়েরা। রাউন্ড রবিন লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে লাল-সবুজদের প্রতিপক্ষ সিঙ্গাপুর। টুর্নামেন্ট খেলতে ৪ সেপ্টেম্বর ভোরে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়বে বাংলাদেশ দল। সেখানে পৌঁছে টুর্নামেন্ট শুরুর আগ পর্যন্ত চারদিনে দু’টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার ইচ্ছে রয়েছে লাল-সবুজদের। তথ্যটি রোববার নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ দলের সহকারি কোচ হেদায়েতুল ইসলাম রাজিব।

এয়ার এশিয়া ওমেন্স জুনিয়র এএইচএফ কাপকে সামনে রেখে গতকাল ১৮ সদস্যের জাতীয় মহিলা হকি দল ঘোষনা করা হয়। দলের অধিনায়ক নির্বাচিত হয়েছেন রিতু খানম। ক্যাম্পে থাকা ২৬ জনের মধ্য থেকে বাছাই করে চুড়ান্ত দল নির্বাচন করা হয়েছে। দলের উপদেষ্টা কোচ একে বানসাল জানান পারফরমেন্সের ভিত্তিতেই দল নির্বাচন করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে তার কথা, ‘যারা চুড়ান্তভাবে নির্বাচিত হয়নি তারা যে ভালো নয় সেটি বলা যাবে না। তারাও অনেক মেধাবী। কাউকে না কাউকে তো বাদ পড়তেই হবে, সেজন্যই ওরা বাদ পড়েছে।’

বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সাধারন সম্পাদক একেএম মমিনুল হক সাঈদ বলেন, ‘দেশের বাইরে প্রথম কোন আন্তর্জাতিক টুর্ণামেন্টকে ঘিরে নতুন সম্ভাবনার পথে যাত্রা শুরু হলো বাংলাদেশ নারী হকির। টুর্ণামেন্টের ফলাফল যাই হোক এই মেয়েদের দীর্ঘমেয়াদী অনুশীলন ও সামাজিক নিরাপত্তার ব্যবস্থা করবে হকি ফেডারেশন।’

প্রথমবারের মতো জাতীয় দলের নেতৃত্ব পেয়ে উচ্ছ্বসিত রিতু খানম। অধিনায়কত্ব দিয়ে মাশরাফি যেভাবে দেশবাসির মন জয় করেছেন ঠিক তেমনি হকি অধিনায়ক হিসেবে সবার মন জয় করতে চান রিতু। তার কথায়, ‘মাশরাফি নড়াইলের সন্তান, আমিও নড়াইলের। ক্রিকেটে অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফি যেভাবে সুনাম কুড়িয়েছেন আমিও হকিতে সেভাবে সুনাম কুড়িয়ে আনবো ইনশাআল্লাহ। প্রথমবার সিঙ্গাপুর থেকে যেন একটা জয় নিয়ে ফিরতে পারি সেজন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চাচ্ছি।’

বাংলাদেশ দল :

খেলোয়াড় - গোলরক্ষক : রিয়া আক্তার স্বর্ণা (সহ অধিনায়ক) ও সুমি আক্তার। রক্ষণভাগ : রিতু খানম (অধিনায়ক), জোয়ারিয়া ফেরদৌস জয়ীতা, মুক্তা খাতুন, রাণী আক্তার রিয়ামনি, পারভীন আক্তার ও লিমা খাতুন। মিডফিল্ডার : ফারদিয়া আক্তার রাত্রি, সানজিদা আক্তার সাথী, সানজিদা আক্তার মনি, মোকসেদা আক্তার মুন্নী ও নাদিরা এবং আক্রমণভাগ : নমিতা কর্মকার, সাদিয়া খাতুন, তারিন আক্তার খুশী, অর্পিতা পাল ও তাসনিম আক্তার মিম।

কর্মকর্তা- প্রধান কোচ: তারিকুজ্জামান নান্নু, সহকারি কোচ: হেদায়েতুল ইসলাম রাজিব ও শহীদুল্লাহ টিটু এবং সমন্বয়ক: পারভীন নাসিমা পুতুল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন