Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী

মেঘনাঘাটে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে রিলায়েন্সের সঙ্গে চুক্তি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

নারায়ণগঞ্জের মেঘনাঘাটে ৭১৮ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন গ্যাস ভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে রিলায়েন্স বাংলাদেশ এলএনজি অ্যান্ড পাওয়ার লিমিটেডের সঙ্গে চুক্তি করেছে সরকার। গতকাল রোববার বিকেলে বিদ্যুৎ ভবনে এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।
চুক্তিতে বলা হয়েছে, তিন বছরের মধ্যে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণকাজ শেষ হবে। উৎপাদিত প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম পড়বে ৫ দশমিক ৮৫ টাকা (ইউএস ডলার ৮০ টাকা হিসেবে)। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত রিভা গাঙগুলি দাস, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মূখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ, বিদ্যুৎ বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, জ্বালানী সচিব আবু হেনা রহমাতুল মুনিম, রিলায়েন্স গ্রæপের হেড অব বিজনেস সমীর কুমার গুপ্ত, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে প্রধান ড. তৌফিক ই ইলাহী চৌধুরী বলেন, সরকার কেন বড় প্রকল্প হাতে নেয় না, এ নিয়ে একসময় সমালোচনা হতো। তখন আমরা স্বল্প ও মধ্য মেয়াদি প্রকল্পগুলো হাতে নিতাম। এখন দীর্ঘ মেয়াদি প্রকল্প হাতে নেয়া হচ্ছে।
ভারতের রাষ্ট্রদূত রিভা গাঙগুলি দাস বলেন, বাংলাদেশ-ভারতের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে। রামপাল মৈত্রী থার্মাল পাওয়ার প্ল্যান্ট একটি সফলতার প্রতীক। আমি মনে করি, নতুন বিদ্যুৎকেন্দ্রও আরেকটি সফলতার প্রতীক হবে। বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরিবেশ খুবই আকর্ষণীয়, এ কথা উল্লেখ করে রিভা গাঙগুলি দাস বলেন, রিলায়েন্সেকে দেখে অন্যরাও আগ্রহী হবে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চুক্তি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ