Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার , ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে থাকবে যুক্তরাষ্ট্র : সিলেটে মার্কিন রাষ্ট্রদূত

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৪:৩৩ পিএম

বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার বলেছেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে থাকবে যুক্তরাষ্ট্র। তবে রোহিঙ্গারা যাতে নিরাপদে তাদের বাড়িতে ফিরতে পারে মিয়ানমারকে অবশ্যই সেই ব্যবস্থা করতে হবে।
মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২ টায় সিলেটের ঐতিহ্যবাহী ক্বীন ব্রিজ পরিদর্শন শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি এ কথাগুলো বলেন।
এসময় তিনি আরও বলেন, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের উপর আন্তর্জাতিক চাপ অব্যাহত রাখতে হবে। তবে আমরা আশা করছি মিয়ানমার দ্রুত তাদের ফিরিয়ে নিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।
রবার্ট আরও মিলার বলেন, ২০১৭ সালের আগস্ট মাস থেকে যুক্তরাষ্ট্র রোহিঙ্গাদের সহায়তা দিয়ে আসছে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের সহযোগী হিসেবে কাজ করছে। সুতরাং রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসন না হওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশের পাশে থাকবে যুক্তরাষ্ট্র।
এদিকে সিলেটের ঐহিত্যবাহী ক্বীন ব্রিজ পরিদর্শনের সময় আলী আমজদের ঘড়ি দেখে মুগ্ধ হয়ে তিনি বলেন, ক্বীন ব্রিজের সাথে আলী আমজদের ঘড়ি সৌন্দর্য বাড়িয়েছে। রাষ্ট্রদূত আলী আমজদের ঘড়ির ঘন্টা শুনে মুগ্ধ হয়ে ঘড়ির প্রশংসা করেন।
তিনি আরও বলেন, ক্বীন ব্রিজের মেরামত কাজ চলছে শুনে দেখতে এসেছি। ক্বীন ব্রিজ দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া ও এর সৌন্দর্য বাড়ানোর পদক্ষেপে সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর ভূয়সী প্রশংসা করে রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার বলেন, এটি অন্য যে কোন দেশের চেয়ে লম্বা পায়ে হাটার ব্রিজ।
এসময় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, কিন ব্রিজ একটি ঐতিহ্যবাহী ব্রিজ। এই ব্রিজ ব্রিটিশদের তৈরি। রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার সিলেট সফরে আসলে তিনি ব্রিজটি দেখতে আসেন। পাশাপাশি ব্রিজের রক্ষণা-বেক্ষণে তার সরকারের সহায়তা থাকবে বলেও জানিয়েছেন আর্ল রবার্ট মিলার।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন - সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী, প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমান, প্রকৌশলী শামছুল হক পাটোয়ারী প্রমুখ।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মার্কিন রাষ্ট্রদূত


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ