Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৫ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

কামারখন্দের সেই ভুয়া ডাক্তার কামরুল হাসান অপু কারাগারে

সিরাজগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬:৩২ পিএম

চলতি বছরের ৩০জুন একটি জাতীয় দৈনিকের অনলাইন সংস্করণে ‘সিরাজগঞ্জে এমবিবিএস পাস না করেও বিশেষজ্ঞ ডাক্তার!’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের সেই ভুয়া ডাক্তার কামরুল হাসান অপু এখন কারাগারে। তিনি টাঙ্গাইল জেলার সখিপুর উপজেলার সাবালিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে ও সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার জামতৈল বাজার এলাকার বিশিষ্ট ঠিকাদার ও সাধারণ ব্যবসায়ী এসএম নজরুল ইসলামের জামাতা। মঙ্গলবার দুপুরে তিনি সিরাজগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শাহাদৎ হোসেন প্রাং এর আদালতে আইনজীবীর মাধ্যমে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে বিজ্ঞ বিচারক তার আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিরাজগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের অতিরিক্ত পিপি অ্যাড. আব্দুর রউফ পান্না।
তিনি জানান, ৩০জুন অনলাইন সংস্করণে ‘সিরাজগঞ্জে এমবিবিএস পাস না করেও বিশেষজ্ঞ ডাক্তার!’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি বিজ্ঞ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের দৃষ্টিগোচর হলে তিনি সিরাজগঞ্জ সিভিল সার্জন ও কামারখন্দ থানাকে বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দেন। কিন্তু উভয়ের তদন্ত প্রতিবেদনে ওই ভুয়া ডাক্তার পলাতক ও ডায়াগনষ্টিক কমপ্লেক্সটি বন্ধ রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। পরে বিজ্ঞ আদালত জনস্বার্থ বিবেচনায় কামারখন্দ থানাকে মামলা করার নির্দেশ দিলে ১৬জুলাই ২০১৯ এসআই ইয়ামিন সরকার বাদি হয়ে বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিল আইন ২০১০ এর ২৮(২)/১৯(১)সহ পেনাল কোর্টের ৪১৯/৪২০ ধারায় থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- ০৮ এবং জিআর নং-৬৩/১৯। তিনি আরো জানান, কথিত ডাক্তার কামরুল হাসান অপু ১৯আগষ্ট উচ্চ আদালত থেকে ১৪দিনের জন্য জামিনপ্রাপ্ত হন। ২সেপ্টেম্বর সোমবার ছিলো ওই জামিন মেয়াদের শেষ দিন।
উল্লেখ্য, ভুয়া ডাক্তার কামরুল হাসান অপু প্রায় তিন বছর ধরে কামারখন্দ উপজেলার জামতৈল বাজারের বিশিষ্ট ঠিকাদার ও ব্যবসায়ী এসএম নজরুল ইসলামের মেয়েকে ডাক্তার পরিচয়ে বিয়ে করে তার শাশুড়ির নামে প্রতিষ্ঠিত ইবনেসিনা আস্থা ডায়াগনষ্টিক কমপ্লেক্সে বসে প্র্যাকটিস শুরু করেন। তিনি তার ‘প্রেসক্রিপশন, ভিজিটিং কার্ড ও সাইন বোর্ডে এমবিএস (আরএমসি), পিজিটি (মেডিসিন), সিএমইউ আল্ট্রা, প্রাক্তন অনারারি মেডিকেল অফিসার, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা, ব্যবহার করছিলেন। এছাড়া শিশু, বাতব্যথা, মাথাব্যথা, বক্ষব্যাধি ও মেডিসিন বিষয়ে বিশেষ অভিজ্ঞ’ বলে এক শ্রেণীর দালালের মাধ্যমে গ্রামের নিরীহ, গরীর ও অসহায় মানুষদের চিকিৎসা দেয়ার নামে প্রতারণা করে আসছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ