Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

১০ হাজার এজেন্ট নিয়োগ দেবে ডেল্টা লাইফ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৯:১৭ পিএম

নতুন করে ১০ হাজারের বেশি এজেন্ট নিয়োগ দেবে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ডেল্টা লাইফ ইনস্যুরেন্স লিমিডেট। নিয়োগের পরপরই তাদেরকে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) খুলনায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে নতুন এজেন্ট নিয়োগের কথা জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আদিবা রহমান। তিনি বলেন, বেশিরভাগ মানুষকে বিমা সুবিধার আওতায় নিয়ে আসার লক্ষে দেশজুড়ে ১০ হাজার নতুন এজেন্ট নিয়োগ দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে অনভিজ্ঞ মেধাবী তরুণদের অগ্রাধিকার দেবে ডেল্টা লাইফ। প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিমা খাতে দক্ষ জনশক্তি তৈরির প্রয়াসে এই পদক্ষেপ নিয়েছি।

আদিবা রহমান বলেন, বিমা খাতে এজেন্টরাই একটি প্রতিষ্ঠানের প্রাণ। ভালো এজেন্টরা যেমন বিমা সেবার প্রসারে সবচেয়ে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে সক্ষম, তেমনি এজেন্টের অভাবে বিমার প্রসার স্তিমিত হয়ে যেতে পারে। পেশা হিসেবে বিমা এজেন্টদের রয়েছে অপার সম্ভাবনা। দেশের বেকারত্ব সংকট নিরসনেও অগ্রণী ভূমিকা রাখতে পারে বিমা খাত। তিনি বলেন, পেশা হিসেবে বিমা খাতের সম্ভাবনা তুলে ধরার প্রয়াসে দেশজুড়ে নানা কর্মসূচির আয়োজনে কাজ করবে ডেল্টা লাইফে।

আদিবা রহমান বলেন, ‘বিমা খাতে এজেন্টরাই একটি প্রতিষ্ঠানের প্রাণ। ভালো এজেন্টরা যেমন বিমা সেবার প্রসারে সবচেয়ে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে সক্ষম, তেমনি এজেন্টের অভাবে বিমার প্রসার স্তিমিত হয়ে যেতে পারে। পেশা হিসেবে বিমা এজেন্টদের রয়েছে অপার সম্ভাবনা। দেশের বেকারত্ব সংকট নিরসনেও অগ্রণী ভূমিকা রাখতে পারে বিমা খাত।’

তিনি আরও বলেন, ‘পেশা হিসেবে বিমা খাতের সম্ভাবনা তুলে ধরার প্রয়াসে দেশজুড়ে নানা কর্মসূচির আয়োজনে কাজ করবে ডেল্টা লাইফে। তরুণ এজেন্টরা সহজেই প্রতিমাসে ১৫-২৫হাজার টাকা পর্যন্ত আয় করতে সক্ষম হবে। যা পর্যায়ক্রমে এজেন্টের দক্ষতা ও কর্মপরিধির ওপর ভিত্তি করে বৃদ্ধি পাবে।’

 



 

Show all comments
  • এস,এম,হাবীবুল্লাহ্ সিদ্দিকী ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১০:৫১ এএম says : 0
    জনাব, ডেল্টা লাইফ কর্তৃপক্ষ । ১০ হাজার কেন ১৯ লাখ কর্মী নিয়োগ দিয়েও তেমন ফল হবে না । আপনারা (সকল কোম্পানী) অবগত আছেন যে, এক সময় বেছে বেছে সমাজের ভালো লোকের সহযোগীতায় আমাদের দেশে বীমা কোম্পানীর যাত্রা শুরু হয়েছিল । সমাজের শিক্ষিত ভদ্রলোক আপনাদের কথায় বীমা পেশায় এসেছিলেন । কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয় আপনারা কিছু সংখ্যক টাউট বাটপার (আপনাদের নিজস্ব লোক) তাদের মাথার উপর দিয়ে অনৈতিক ভাবে ভালো লোক গুলো বিদায় করে কোম্পানীর টাকা লোপাট করার সহযোগীতা করেছেন। অধিকাংশ কোম্পানীর একই অবস্থা । কেউ মূর্খ নির্বাহীর লোক,কেউ আবার মালিক পক্ষের লোক । নিয়ম বহির্ভূত ভাবে অযোগ্য তথা পরিবার কেন্দ্রীক লোক নিয়োগ দেওয়ার ফলে কোম্পানীর ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে । কোম্পানী আর্থিক ভাবে ক্ষতি গ্রস্হ হয়েছে । কোম্পানীর টাকা লোপাট হওয়ার কারণে অনেক কোম্পানী গ্রাহকের টাকা পরিশোধ করতে নানা টালবাহানা করছে । যা বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে । এমতাবস্থায় কর্মী নিয়োগের চিন্তা না করে গ্রাহকদের পাওনা পরিশোধ করার কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ জরুরী । গ্রাহকদের পাওনা যথাসময়ে পরিশোধ করা গেলে কর্মীর অভাব হবে না । সর্বোপরি গ্রাহক হয়রানির কারণে বীমা পেশায় কাজ করার লোক খুঁজে পাওয়া কষ্টকর ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন