Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

যেসব আমলে দোয়া দ্রুত কবুল হয়

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০৮ পিএম

দোয়া অর্থ আল্লাহ তায়ালার কাছে চাওয়া। বান্দার উচিত আল্লাহ তায়ালার কাছে বেশি বেশি দোয়া করা। কেননা রাসূলুল্লাহ স. বলেছেন, দোয়া ইবাদতের মগজ। দোয়া করার সময় বেশ কয়েকটি বিষয় খেয়াল রাখা উচিত। আলেমরা এগুলোকে দোয়া কবুলের শর্ত এবং আদব বলেছেন।

পবিত্রতা অর্জন : পবিত্রতা অর্জনের পর দোয়া করলে আল্লাহ তায়ালা সেই দোয়া কবুল করেন।

বিনয়ের সাথে দোয়া করা : বিনয়ের সঙ্গে দু’হাত তুলে দোয়া করা। হজরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা.) থেকে বর্ণিত, হজরত রাসূলুল্লাহ সা. বলেন, আল্লাহ তায়ালার নিকট হাত তুলে হাতের তালু সামনে রেখে দোয়া কর। হাত উল্টো করো না। দোয়ার শেষে উত্তোলিত হাত মুখমন্ডলে বুলিয়ে নাও। -আবু দাউদ

মিনতিভরা কন্ঠে দোয়া করা : মিনতি ও নম্রতার সঙ্গে দোয়া করলে তা ইবাদত হিসেবে গন্য হয়। রাসূলুল্লাহ সা. বলেছেন, দোয়া সব ইবাদতের মজ্জা ও সারাংশ।

দু’হাত তুলে দোয়া করা : বিনয়, নম্রতা ও দাসত্ব প্রকাশ করার জন্য দোয়ার সময় দু’হাতের তালু আসমানের দিকে রাখতে হবে এবং হাত সম্পূর্ণ সম্প্রসারিত করে দু’হাতের মধ্যে ২/১ আঙ্গুল পরিমাণ ফাঁক রাখতে হবে।

হাত কচলানো, রশি পাকানোর মতো হাতের তালু ঘষাঘষি করা দোয়ার আদব নয়। মনে রাখতে হবে, আপনি আল্লাহ তায়ালার দরবারে হাত তুলেছেন, তাই এখানে কোনো ধরনের অমনোযোগিতা কাম্য নয়।

হাদিস শরীফে বর্ণিত আছে, যে হাত আল্লাহর দরবারে উত্তোলিত হয়, তা একেবারে শূণ্য অবস্থায় ফিরিয়ে দিতে তিনি লজ্জাবোধ করেন।

আল্লাহর প্রশংসা ও দরুদ শরীফসহ দোয়া করা: আল্লাহর প্রশংসা ও দরুদ শরীফসহ দোয়া করা। আল্লাহর প্রশংসা যেমন, আলহামদু লিল্লাহি রব্বিল আলামিন দোয়ার শুরুতে বলা। এছাড়া ইসমে আজমের সহিত দোয়া করা উত্তম।

হজরত আসমা বিনতে ইয়াজিদ রা. থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেন, ইসমে আজম এই আয়াতদ্বয়ে রয়েছে- ১. ওয়া ইলাহুকুম ইলাহু ওয়াহিদুন লা ইলাহা ইল্লা হুয়ার রাহমানুর রাহিম। -সূরা বাক্বারা: ১৬৩। ২. আলীফ লাম মীম। আল্লাহু লা ইলাহা ইল্লা হুয়াল হাইয়্যুল কাইয়্যুম। -সূরা আল ইমরান: ১

রাসূলুল্লাহ সা. বলেন, এ বান্দা আল্লাহর ইসমে আজমের ওসিলায় দোয়া করেছে। এ ওসিলায় আল্লাহর কাছে দোয়া করলে দোয়া কবুল হয় এবং আল্লাহর কাছে কোনো কিছু চাইলে, আল্লাহ তা দান করেন। -তিরমিজি

অন্য এক হাদিসে এসেছে হজরত রাসূলে মাকবুল (সা.) বলেছেন, যে ব্যক্তি দোয়া করার পূর্বে দরুদ শরীফ পড়ে, তার দোয়া অবশ্যই কবুল হয়। মহান আল্লাহতায়ালা অসীম দয়ালু; দোয়ার কিয়দাংশ কবুল করে অপর অংশ কবুল না করা তার স্বভাব নয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন