Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৬ আগস্ট ২০২০, ০১ ভাদ্র ১৪২৭, ২৫ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

পীরগাছায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

পীরগাছা (রংপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৪:৩০ পিএম

রংপুরের পীরগাছায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় ৩জনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। ধর্ষিতাকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বৃহস্পতিবার দুপুরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার পবিত্রঝাড় গ্রামে।
ওই শিক্ষার্থীর পরিবার ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বালাপাড়া গ্রামের শেখ আহমেদের ছেলে মুরাদ আহমেদের (২২) সঙ্গে ৮ মাস পূর্বে ওই শিক্ষার্থীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন থেকে মুরাদ তার বন্ধু ও আতœীয় স্বজনের বাড়িয়ে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। গত ৩১ (আগস্ট) মুরাদ ওই শিক্ষার্থীকে বিয়ের কথা বলে বাড়িতে নিয়ে যায়। এসময় মুরাদের মা ও ভাই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। একপর্যায়ে মুরাদ পালিয়ে গেলে ওই শিক্ষার্থীকে পরিবারের লোকজন বেধরক মারপিট করলে গুরুতর আহত হয়। আহত ওই শিক্ষার্থীকে এলাকাবাসী উদ্ধার করে ওই দিন রাতেই পীরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। এঘটনায় ওই র্শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে মুরাদসহ ৩জনকে আসামী করে পীরগাছা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করে পীরগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম বলেন, “ধর্ষণের শিকার কিশোরীকে রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ৩জনেক আসামী করে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ

২৯ জুলাই, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ