Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

নির্বাচন নিয়ে টিআইবি ও সুজন মানুষকে বিভ্রান্ত করছে

মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭:১১ এএম


 একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) ও সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)-এর দেয়া তথ্য ও বক্তব্যের সমালোচনা করেছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক। তিনি বলেন, নির্বাচন নিয়ে টিআইবি ও সুজন ভুল তথ্য দিচ্ছে। তারা মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। এই অধিকার তাদের দেয়া হয়নি। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন’ আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।
‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষক ও বিশিষ্টজনদের অভিজ্ঞতা’ শীর্ষক এই গোলটেবিল বৈঠকে কাজী রিয়াজুল হক বলেন, নির্বাচন হচ্ছে মানুষের অধিকার, মানবাধিকার। এই মানবাধিকার এই দেশের মানুষ সব সময় আনন্দের সঙ্গে ভোগ করেছে। কিন্তু এবারের নির্বাচনে অভিযোগ হলো, এত ভোট কীভাবে হলো?
২০০১ ও ২০০৮ সালের নির্বাচনে ভোটের পরিসংখ্যান তুলে ধরে কাজী রিয়াজুল হক বলেন, এসব নির্বাচনেও মানুষ ভোট দিয়েছিল, ২০০১ সালে ৭৫ শতাংশ এবং ২০০৮ সালে ৮৭ শতাংশ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। ২০০১ সালের দুঃশাসনের কথা মানুষ ভুলে যায়নি। একই অনুষ্ঠানে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে টিআইবির করা জরিপের সমালোচনা করেন ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ বলেন, টিআইয়ের এই গবেষণা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ আছে। পৃথিবীর কোথাও শতভাগ স্বচ্ছ নির্বাচন হয়নি, তা সম্ভবও নয়। টিআইবির যে কোনও গবেষণায় স্বচ্ছ থাকা দরকার। এখানে তারা এমনটা দেখাতে পারেনি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বিদেশি পর্যবেক্ষক ও কলকাতা হাইকোর্টের অ্যাডভোকেট গৌতম ঘোষ বলেন, স্বচ্ছ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে এই নির্বাচন হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনে মারামারি হয়েছে, গাড়ি ভাঙচুর হয়েছে। কিন্তু এখানে (বাংলাদেশ) তো এমন কিছু হয়নি।
বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের মহাসচিব আবেদ আলী, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ইউসুফ হোসেন হুমায়ূন, সাবেক সেনা প্রধান-হারুন-অর রশীদ, মেজর জেনারেল (অব.) আবদুর রশিদ, নির্বাচনে বিদেশি সাংবাদিক কলকাতা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি কমল ভট্টাচার্য প্রমুখ।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মানবাধিকার


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ