Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

কাশ্মীরে ভারত-পাকিস্তান গোলাগুলি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০৯ পিএম

কাশ্মীরে নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারত ও পাকিস্তানের সৈন্যদের মধ্যে গুলির ঘটনা চলছে। স্থানীয় সময় আজ রোববার সকাল ১০টা থেকে এই লড়াইয়ে লিপ্ত উভয়পক্ষ। ভারতের মিডিয়ায় দাবি করা হয়েছে, জম্মু-কাশ্মীরের নওশেরা, সুন্দরবাণী এলাকায় যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তান। এর প্রতিশোধ নিচ্ছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। ভারতীয় মিডিয়ায় এ খবর দেয়া হলেও পাকিস্তানের বক্তব্য জানা যায়নি।

অনলাইন জি নিউজ লিখেছে, জম্মু-কাশ্মীরের রাজৌরি জেলায় আজ সকালে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে পাকিস্তান। নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর গুলি ও গোলা নিক্ষেপ শুরু করে তারা। এরপরই মুখোমুখি অবস্থানে চলে যায় ভারতীয় সেনারা। ফলে দু’পক্ষের সেনাদের মধ্যে সেখানে লড়াই চলছে। জি নিউজ আরো লিখেছে, ২রা সেপ্টেম্বরও জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলায় যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে পাকিস্তানি সেনারা। ভারতের জাতীয় স্বার্থ রক্ষা করতে গিয়ে সেদিন ভারতীয় একজন জওয়ান শহীদ হয়েছেন। তিনি গ্রেনেডিয়ার হেমরাজ জাত (২৩)। তার বাড়ি রাস্থানের আলওয়ারের ভাদুন গ্রামে। ২০১৭ সালের মার্চে তিনি সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছিলেন।

এর আগে শনিবার ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল জানান, সীমান্তের ২০ কিলোমিটারের মধ্যে রয়েছে পাকিস্তানি যোগাযোগ বিষয়ক টাওয়ার। এসব টাওয়ার ব্যবহার করে তারা বার্তা পাঠাচ্ছে। এসব কথোপকথন ভারত শুনতে পেয়েছে এবং পাকিস্তান থেকে কোনো অনুপ্রবেশের বিরুদ্ধে লড়াই করতে প্রস্তুত ভারতের সেনারা। গত ৩০ শে আগস্ট ভারত সরকার একটি ডাটা প্রকাশ করেছে। তাতে বলা হয়েছে, ৫ই আগস্ট কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নেয়ার পর থেকে পাকিস্তানি সেনারা কমপক্ষে ২২২ বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে। এতে আরো বলা হয়েছে, ২০১৯ সালে মোট ১৯০০ বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তানি সেনারা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত-পাকিস্তান

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন