Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

‘ইনশাল্লাহ’র স্থান দখল করলো সালমানের ‘ওয়ানটেড টু’

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৩:৪৬ পিএম | আপডেট : ৩:৫৯ পিএম, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

কথা ছিল আগামী বছর ঈদে সালমান খানের ‘ইনশাল্লাহ’ মুক্তি দেওয়া হবে। এ নিয়ে রোহিত শেঠির ‘সূর্যবংশী’র মুক্তির দিনও পরিবর্তন করা হয়। কিন্তু ‘ইনশাল্লাহ’র শুটিং আরম্ভ হওয়ার মুহুর্তে সালমান এবং সিনেমাটির প্রযোজকের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় এর থেকে সরে দাঁড়ান ভাইজান। অবশ্য বিষয়টি নিয়ে আরও একাধিক তথ্যই ঘুরছে গণমাধ্যমে। কেউ কেউ বলছেন প্রযোজক নয় সয়ং সঞ্জয় লীলা বানসালির সঙ্গেই নাকি ঝামেলা হয়েছে সালমানের। এ অবস্থায় সালমান ভক্তরা র্দুশ্চিন্তাগ্রস্থ। কারণ ঈদের মতো বড় একটি উৎসবে সাল্লু মির্জার কোনো সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে থাকবে না সেটা তো আর হতে পারে না। সেই ভাবনাটাও যেন ভক্তদের মনে একটি রক্ত ক্ষরণ বিষয়। তবে সংশ্লিষ্টরা শুরু থেকেই দাবি করে আসছিলেন ‘ইনশাল্লাহ’ থেকে সরে গিয়েছেন তো কি হয়েছে! সালমান খান ঠিকই তার অন্য কোনো প্রজেক্ট নিশ্চই প্রস্তুত করে ফেলবেন।

‘ইনশাল্লাহ’ থেকে সরে গিয়ে ভাইজান ডেকে পাঠান তার ‘কিক টু’র নির্মাতাকে। কিন্তু সাজিদ নাদিয়াওয়ালার সঙ্গে বৈঠক করেও কোনো লাভ হয়নি। কারণ এই নির্মাতা সালমানকে পরিস্কার জানিয়ে দিয়েছেন এতো দ্রুত কোনো ভাবেই ‘কিক টু’ সম্পন্ন করা সম্ভব নয়। সে খবর প্রকাশ্যে আসতেই আবারও হতাশায় বুক বাঁধেন সালমান ভক্তরা। এরপরও অনেকেই বলেছেন এখনও র্দুশ্চিন্তা করার কিছুই হয়নি। কারণ সালমান খান এতো সহজে হাল ছাড়ার মানুষ নন। দীর্ঘদিন ধরে ঈদ মানেই তার নতুন সিনেমা। এতো তাড়াতাড়িতো আর সে এই আসনটি অন্য কাউকে দখল করতে দেবেন না।

সত্যি সত্যিই যেন এমনটিই হতে চলেছে। ইতোমধ্যেই ভাইজানের কাছ থেকে তার ভক্তদের জন্য উড়ে এসেছে দারুণ এক সুখবর। সুখবরটি হচ্ছে সালমান খানই ঈদ মাতাতে আসছেন। সম্প্রতি এমনই এক খবর প্রকাশ পেয়েছে ভারতীয় একটি গণমাধ্যমে। সেই খবরে বলা হয়েছে সালমান খান ইতোমধ্যেই তার পরবর্তী প্রজেক্ট প্রস্তুত করেছেন। এরইমধ্যে পরিচালকও চূড়ান্ত হয়েছে। খুব শীঘ্রই সালমান নিজের প্রযোজনা সংস্থা সালমান খান ফিল্মসের প্রযোজনায় নৃত্য পরিচালক প্রভু দেবার পরিচালনায় ‘ওয়ানটেড’-এর সিক্যুয়েল নির্মাণ করতে চলেছেন। এই সিনেমাটিই আগামী ঈদে প্রেক্ষাগৃহ কাঁপাবে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে আরও জানা যায় ‘ওয়ানটেড’-এর গল্পেই সিক্যুয়েল নির্মাণ হবে। কিন্তু নামটি হয়তো পরিবর্তন হবে। তবে এখনও নিশ্চিত নয়। কারণ এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা এখনও সালমান খান অথবা প্রভু দেবার কাছ থেকে পাওয়া যায়নি। তাতে কি হয়েছে বলিউডের অন্দর মহলে এই খবরটি পাখা মেলেছে ঝড়ের গতিতে।

এদিকে প্রভু দেবার পরিচালনায় ‘দাবাং থ্রী’র কাজ চলছে পুরো দমে। এই সিনেমাতেও সালমান খান অভিনয় করছেন। এতে সালমানের বিপরীতে অভিনয় করছেন সোনাক্ষী সিনহা। আরও আছেন নবাগত নায়িকা সাই। অন্যদিকে ‘ওয়ানটেড’-এর সিক্যুয়েলে সালমানের বিপরীতে কোন নায়িকা থাকছেন সেটা জানা যায়নি। তবে সংশ্লিষ্টদের ধারণা খুব শিগগিরই ‘ওয়ানটেড’ সিক্যুয়েলের বিস্তারিত বিষয় নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুলবেন সালমান। জানা যায় এই সিনেমার শুটিং শুরু হবে এ বছর শেষের দিকে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বলিউড

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ