Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

ফল উৎসবে ঢাবি’র সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীরা

প্রকাশের সময় : ১৩ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

মধুমাস শেষ পর্যায়ে। মধুমাসের একটি আবেদন তো আছেই। তার মধ্যে এদেশে গণতন্ত্র ও মুক্তবুদ্ধি চর্চার সূতিকাগারখ্যাত ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়’র সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের মাস্টার্স (প্রিভিয়াস) শিক্ষার্থীদের ক্লাস সমাপনী। সবার মধ্যে বিরাজ করে একটি উৎসব উৎসব ভাব। ক্লাস পার্টি টাইপের কিছু একটা হওয়া চাই। শুরু হলো চিন্তা। অবশেষে ফল উৎসব আর সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজনে মেতে ওঠে শিক্ষার্থীরা। নিজেদের ঘরোয়া পরিবেশে আয়োজিত অনুষ্ঠানটি শেষ পর্যায়ে ফল উৎসব, ১০ পাউন্ডের কেক কাটা ও ডিনার পার্টিতে গিয়ে ঠেকে। গান, আবৃত্তি, অভিনয় মিলিয়ে একটি জমকালো বিনোদন সন্ধ্যায় পরিণত হয় এটি।
রসেভরা আম, কাঠাল, লিচু, জাম, লটকন, জামরুল, কলা, আনারস, ডালিম, পেয়ারাসহ প্রায় ২৫ রকমের ফলের সমারোহ ঘটেছে ফল উৎসবে। কেক কেটে ও ফল খেয়ে উৎসব উদ্বোধন করেন সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. তানিয়া রহমান। তিনি বলেন, জ্ঞানার্জনের পাশাপাশি বিনোদন ও সম্প্রীতির বন্ধনকে সুদৃঢ় করার প্রয়াসে শিক্ষার্থীরা যে ফল উৎসবের আয়োজন করেছে, আমি তাদের এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইনস্টিটিউটের শিক্ষক অধ্যাপক ড. গোলাম আজম, অধ্যাপক ড. মাহবুবা সুলতানা, অধ্যাপক ড. গোলাম রাব্বানী, অধ্যাপক ড. ফজলে খোদা প্রমুখ। শিক্ষকদের পুষ্প গুচ্ছ দিয়ে বরণ করে নেয় আয়োজক শিক্ষার্থীরা।
অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন গুলে নুর আক্তার, মিজানুর রহমান নাঈম, মিহির কান্তি বণিক, রুমি জাহান, নাঈম আহমেদ চৌধুরী প্রমুখ।
সে সময় শিক্ষার্থীদের সাজসজ্জা ও পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠে পুরো ক্যাম্পাস। ‘ভ্রাতৃত্বের বন্ধন থাকবে অটুট’ শ্লোগানকে বুকে ধারণ করে গ্রহণ করা হয় অনুষ্ঠানের পুরো পরিকল্পনা। ছাত্রীদের একই রঙের শাড়ি আর ছাত্রদের ড্রেস কোড ছিল পাঞ্জাবি। রঙিন পোশাকে যেন নতুন একটি পরিবেশ সৃষ্টি হয়। কেক কাটার পর্বে অংশ নেন সকল শিক্ষক ও উপস্থিত শিক্ষার্থীরা। শুরু হয় ফল খাওয়ার পালা। রসে ভরা প্রতিটি ফল যেন টসটস করছে। মহা আনন্দে সেগুলো খেয়ে তৃপ্তির স্বাদ নিলেন সকলে। মধু মাসের আমেজ যেন ধরা দিয়েছে সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের এই অংশে। সন্ধ্যা নেমে এলে পাখ-পাখালির কলকাকলিতে এলাকাটি এমনিতেই মুখরিত হয়। তার মধ্যে নানান ফুল ও ফলের সুবাস আর সমাপনী ক্লাস’র কারণে সকলের পরিহিত নানা রঙের বাহারি পোশাকে সত্যিই উৎসবমুখর হয়ে উঠে পুরো এলাকা।
ষ মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ