Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

যুক্তরাষ্ট্র সন্ত্রাসীদের মদদ দিলে তুরস্ক চুপ থাকবে না : এরদোগান

কুর্দিদের ৩০ হাজার ট্রাক অস্ত্র পাঠিয়েছে ওয়াশিংটন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বলেছেন, কুর্দি বিদ্রোহীদের পৃষ্ঠপোষকতা দেওয়ার ক্ষেত্রে সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে ওয়াশিংটন। সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে এ বিদ্রোহীদের কাছে তারা ৩০ হাজার ট্রাক অস্ত্র পাঠিয়েছে। কিন্তু তুরস্ক এটি মেনে নেবে না। যুক্তরাষ্ট্র এভাবে সন্ত্রাসীদের পৃষ্ঠপোষকতা করলে তুরস্ক চুপ করে বসে থাকবে না। শনিবার এসকিসেহির শহরে ক্ষমতাসীন একে পার্টির এক সভায় তিনি এসব কথা বলেন। খবর ডেইলি সাবাহর।
প্রতিবেদনে বলা হয়, সিরিয়ায় ইউফ্রেটিস নদীর পূর্বদিকের এলাকাকে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সেফজোন ঘোষণা করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। তুরস্কের দাবি, তার আগে ওই এলাকা সন্ত্রাসীমুক্ত করা হোক। সেফজোনের দায়িত্বে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সিরিয়ার প্রতিবেশী তুরস্কও থাকবে। এছাড়া সিরিয়ার শরণার্থীদের জন্য ইউরোপের দরজা বন্ধ করে রাখলে তুরস্ক তাদের জন্য সীমান্ত খুলে দেবে বলেও এরদোগান জনসভায় ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, চলতি মাসের শেষ দিকে নিউ ইয়র্কে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ বিষয়টি উত্থাপন করবেন। এরদোগান বলেন, আমাদেরকে এসব বিষয়ের সমাধান করতে হবে।

আমেরিকার পক্ষ থেকে যা বলা হয়েছে এবং যা করা হয়েছে তার মধ্যে বিস্তর ফারাক রয়ে গেছে। সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলের পরিস্থিতি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও তুরস্কের মধ্যে তীব্র মতবিরোধ রয়েছে। ওই অঞ্চলে তৎপর কুর্দি বিদ্রোহীদের পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে ওয়াশিংটন। তবে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাটো মিত্র তুরস্ক বিষয়টিকে সহজভাবে মেনে নিতে পারছে না। কেননা, সিরিয়ার কুর্দি বিদ্রোহীদের সঙ্গে তুরস্কের কুর্দি বিদ্রোহীদের সম্পর্ক রয়েছে। সিরিয়ায় কুর্দি বিদ্রোহীদের প্রতি মার্কিন পৃষ্ঠপোষকতা দীর্ঘদিনের। তবে আঙ্কারার দাবি, সিরিয়ায় কুর্দিদের সংগঠন ওয়াইপিজি আসলে তুরস্কে কুর্দিদের নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন পিকেকে-র শাখা। কুর্দি জাতীয়তাবাদের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠিত পিকেকে তুরস্ক, ইরান, ইরাক ও সিরিয়ার অংশবিশেষ নিয়ে কুর্দিস্তান নামক একটি স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় আগ্রহী। তিন দশক ধরে তুরস্কের বিরুদ্ধে সশস্ত্র সংগ্রামে লিপ্ত রয়েছে পিকেকে। ১৯৮৪ সাল থেকে তাদের এ বিদ্রোহে অন্তত ৪০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন। আনাদোলু এজেন্সি।



 

Show all comments
  • Md Abu Sayed ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৫৮ এএম says : 0
    সেনাবাহিনীদের পথের কোনায় কোনায় লুকিয়ে রাখুন। পাহারের কোনায়, সর্বত্র লুকিয়ে এদের উপর হামলা চালান এবং এদের সকলকে নিশ্চিহু করে দিন,, এই ফর্মুলাটা কুরআনের। কাজে লাগালে অবশ্যই উপকৃত হবেন।
    Total Reply(0) Reply
  • Sohel Rana ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৫৮ এএম says : 0
    এগিয়ে যাক সত্যের পথের বীরেরা। আমরা আপনাদের জন্য দোয়া ছাড়া আর কিছুই করতে পারলাম না। আল্লাহ অবশ্যই ইসলামের সাথেই আছে। আল্লাহ অবশ্যই জালিমদের পরাজিত করবেন। আল্লাহ অবশ্যই ইসলামের জয়ের পতাকা উড়াতে আপনাদের সাহায্য করবেন।(আমিন)
    Total Reply(0) Reply
  • Rinqu Costa ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৫৯ এএম says : 0
    কুর্দিরা তোমাদের কি করেছে? তুরস্কের কুর্দি জনগনকে তুর্কি সরকার দীর্ঘ্য দিন ধরেই নির্যাতন করে আসছে..
    Total Reply(0) Reply
  • Omar Faruk ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৫৯ এএম says : 0
    ইহুদীবাদীরা তোমাকে কয়েক বছর আগে খুন করতে চেয়েছিল । কিন্তু পারে নাই । এখন তোমার দেশের শান্তি নষ্ট করতে এবং তুরষ্কের উত্তরাঞ্চল কুর্দীদের দ্বারা বিভক্ত করতে এই চাল চেলেছে । ‍যুদ্ধ এবার সিরিয়ার মতো তোমার দেশেও লাগাতে চাইছে । তুমি বা তোমাদের মত নেতাদের ইহুদীদের ‘‘‘‘ইনোন প্লান’’’’’ সম্পর্কে জানা উচিত ।
    Total Reply(0) Reply
  • Miraj Bin Foyshol ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০০ এএম says : 0
    মুসলিম বিশ্বের আমীর আপনি এগিয়ে যান আমেরিকাকে ভয় পাবেন না।কোটি কোটি মুসলমান আপনার সাথে আছে
    Total Reply(0) Reply
  • Ekjon Shadaron Manus ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:০০ এএম says : 0
    আরব দেশে ক্যান্সার ইসরায়েলের নিরাপত্তা দিতে এসব পরিকল্পনা।।।। আর আরব দেশের শাসকরাও সমান অপরাধী, যারা ইহুদী কাফেরদের সহযোগীতা করেছে।।। ইহুদী, খ্রীস্টান শয়তানের জারজ সন্তান। মুসলিম দেশে অশান্তি সৃষ্টি করে স্বার্থ হাছিল করাই কাফেরদের প্রধান কাজ।।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এরদোগান


আরও
আরও পড়ুন