Inqilab Logo

সোমবার, ০২ আগস্ট ২০২১, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮, ২২ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

শাওমির চমক, ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার ফোন!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১১:৪৬ এএম
সেই Nokia যবে স্মার্টফোনের জগতে ৪১ মেগাপিক্সেলের ফোন নিয়ে এল, ঠিক তারপর থেকেই বিশ্বজুড়ে নানান সংস্থার মধ্যে রীতিমতো প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে গিয়েছে। Nokia-র সেই স্মার্টফোন মডেলটির নাম ছিল Nokia 808। এই কিছু দিন আগেই ৪৮ মেগাপিক্সেলের ফোন নিয়ে এল Redmi। আর এরই মধ্যে শোনা যাচ্ছে, এই মুহূর্তে ১০৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা নিয়ে কাজ করছে Xiaomi। এমনকী খবর এ-ও, মোট চারটি নয়া মডেলে এই ১০৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা দিয়ে বড়সড় চমক দেখাতে চলেছে Xiaomi।

ভাবা যায়! ৪১ মেগাপিক্সেল নিয়েই মানুষজন হতবাক হয়ে গিয়েছিলেন একটা সময়ে। সেখান থেকে ৪৮ মেগাপিক্সেল আর এখন তা দাঁড়াচ্ছে ১০৮ মেগাপিক্সেলে। Redmi Note 8 Pro মার্কেটে আসতে চলেছে যার ক্যামেরা ৬৪ মেগাপিক্সেল। Realme XT ফোনেরও ক্যামেরা হতে চলেছে এই ৬৪ মেগাপিক্সেলেরই। সাম্প্রতিক কালের রিপোর্ট বলছে, প্রতিটি স্মার্টফোন সংস্থাই এখন উন্নতমানের ক্যামেরা তৈরির দিকে ঝাঁপাতে চাইছে। কারণ, গ্রাহকেরাও চাইছেন ভালো ক্যামেরার ফোন। তার থেকেও বড় কথা, গ্রাহকদের পাখির চোখ আপডেটড ক্যামেরা।
প্রথমাবস্থায় Xiaomi কাজ করছিল পপ ক্যামেরার দিকে। সেই মতো মার্কেটে লঞ্চও করেছে Redmi k20 এবং Redmi K20 Pro। কিন্তু পপ আপ ক্যামেরাও এখন যেন অতীত। XDA-এর তরফে বেশ কিছু প্রমাণ মিলিছে যেখানে দেখা গিয়েছে, Xiaomi বর্তমানে এই ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা নিয়েই কাজ করছে। আর সেই কাজ তারা ফলো করছে Samsung-এর ISOCELL Bright HMX Sensor কে মাথায় রেখেই।  



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শাওমি
আরও পড়ুন

কাশ্মীর লীগকে স্বীকৃতি না দিতে আইসিসিকে ভারতের চিঠি!

img_img-1627915214

আগামী ৬ আগস্ট থেকে কাশ্মীরে শুরু হতে যাওয়া ক্রিকেট লীগ নিয়ে উত্তাল ক্রিকেট বিশ্ব। তবে এই লীগ নিয়ে এবারো কড়া অবস্থান নিলো সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন বিসিসিআই। কাশ্মীর ক্রিকেট লীগকে স্বীকৃতি না দিতে এবার আইসিসিকে চিঠি দিলো ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড। চিঠিতে বলা হয়, কোনোভাবেই যেন কাশ্মীর প্রিমিয়ার লীগকে (কেপিএল) স্বীকৃতি দেয়া না হয়। -সংবাদ প্রতিদিন কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তান-ভারত বিবাদ দীর্ঘদিনের। বিষয়টি নিয়ে বরাবরই সোচ্চার হয়েছে নয়াদিল্লি। অঞ্চলটিতে নির্বাচন আয়োজনের পর এবার সেখানে ক্রিকেট লীগেরও আয়োজন করতে চলেছে পাকিস্তান। আর সেকারণেই বিষয়টিকে ভালোভাবে নেয়নি বিসিসিআই। পাকিস্তান সুপার লীগ আয়োজন করা নিয়ে কোনো আপত্তি না থাকলেও জাতীয় সুরক্ষার খাতিরে কাশ্মীর প্রিমিয়ার লীগকে কোনোভাবেই স্বীকৃতি দেবে না বিসিসিআই। ইতোমধ্যে বিশ্বের সমস্ত ক্রিকেট বোর্ডকে মৌখিকভাবে সেকথাও জানিয়ে দিয়েছেন সৌরভরা। শুধু তাই নয়, এই লীগে অংশগ্রহণকারী ক্রিকেটারদের ভারতে ক্রিকেট সম্পর্কিত সমস্ত কার্যকলাপে নিষিদ্ধ করা হবে বলেও হুমকি দেয়া হয়। সেই কথাও স্পষ্ট করে ঘোষণা দেয়া হয়। আর এবার এ ব্যাপারে সরাসরি আইসিসিকে চিঠি দিলো ভারতীয় বোর্ড। একটি ক্রীড়াবিষয়ক ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, চিঠিতে ভারতীয় বোর্ডের পক্ষ থেকে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থাকে বলা হয়েছে, কাশ্মীর নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে রাজনৈতিক বিবাদ রয়েছে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে। তাই ওই অঞ্চলে আয়োজিত এই ক্রিকেট লীগকে যেন কোনোভাবেই স্বীকৃতি দেয়া না হয়। এদিকে এই লীগ আয়োজনে বাধা দেয়ার অভিযোগ তুলে বিসিসিআইয়ের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।কাশ্মীরে আয়োজিত ক্রিকেট লীগে না খেলার জন্য তার উপর চাপ সৃষ্টি করছে বিসিসিআই। এমনকি ভারতে প্রবেশের উপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হতে পারে। এর আগে টুইটে এমনই অভিযোগ তুলেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন ক্রিকেটার হার্শেল গিবস। শুধু গিবস নন, আরেক প্রাক্তন ক্রিকেটার পাকিস্তানের রশিদ লতিফও একই অভিযোগ করেছেন। আর এই নিয়েই উত্তাল ক্রিকেট দুনিয়া।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ