Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

কাশ্মীর-আসাম নিয়ে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের উদ্বেগ প্রকাশ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬:০১ পিএম

বিশেষ মর্যাদা বাতিল করার পর ৩৫ দিনে পড়ল অধিকৃত কাশ্মীরের অচলাবস্থা। এখনও পর্যন্ত যোগাযোগ ও ইন্টারনেট স্বাভাবিক হয়নি সেখানে। এই অবস্থায় কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে গুরুতর উদ্বেগ প্রকাশ করল জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল।

কাশ্মীর প্রসঙ্গে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে বিতর্কিত হয়েছে ভারত। একমাসের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও এখনও কাশ্মীরের পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় প্রশ্ন ওঠা শুরু হয়েছে। আজ সোমবার জেনেভায় জাতিসংঘের হিউম্যানস রাইটস কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট মিশেল ৪২ তম অধিবেশনে তার ওপেনিং স্টেটমেন্টে কাশ্মীর নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘কাশ্মীরিদের মানবাধিকার নিয়ে আমি গভীর ভাবে চিন্তিত। সেখানে যে ভাবে ইন্টারনেট বন্ধ করে রাখা হয়েছে, শান্তিপূর্ণ সম্মেলন করতে দেওয়া হচ্ছে না এবং স্থানীয় নেতাদের আটক করে রাখা হয়েছে, তা নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন।’ কাশ্মীরের মানুষকে তাদের সাধারণ অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করেন মিশেল। ভারত-পাকিস্তান আলোচনা করে এই সমস্যা মিটিয়ে নিক বলে আবেদন করেন তিনি। তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, কাশ্মীরের জনগণের ভবিষ্যতের উপর প্রভাব ফেলতে পারে এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রক্রিয়াতে তাদের পরামর্শ নেওয়া এবং নিযুক্ত করা গুরুত্বপূর্ণ।

পাশাপাশি এনআরসি-পরবর্তী পরিস্থিতিতে আসাম নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। উত্তর-পূর্ব ভারতের আসামের নাগরিকদের জাতীয় নিবন্ধকরণ যাচাইকরণ প্রক্রিয়া সম্পর্কে তিনি বলেন, ৩১ আগস্ট প্রকাশিত চূড়ান্ত তালিকা থেকে প্রায় ১৯ লাখ মানুষ বাদ পড়ায় ব্যাপক অনিশ্চয়তা ও উদ্বেগ সৃষ্টি হয়েছে। তিনি ভারত সরকারকে আপিল প্রক্রিয়া চলাকালীন যথাযথ প্রক্রিয়া নিশ্চিত করা, নির্বাসন বা আটক না রাখা এবং মানুষকে রাষ্ট্রহীনতার হাত থেকে রক্ষা করার বিষয়টি নিশ্চিত করতে বলেছেন। সূত্র: ডেকান হেরাল্ড।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন