Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

এবার ফুটবলারদের আফগান পরীক্ষা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৮:৩৭ পিএম

একমাত্র টেস্ট ও ত্রিদেশী টুর্নামেন্ট খেলতে বর্তমানে বাংলাদেশে রয়েছে আফগানিস্তান ক্রিকেট দল। চট্টগ্রামে স্বাগতিকদের বিপক্ষে টেস্টে অসাধারণ পারফরমেন্স করে সোমবার আফগানরা ২২৪ রানের বিশাল জয় তুলে নেয়। এবার যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশটির ফুটবলারদের পালা। ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বে নিজেদের হোম ম্যাচে মঙ্গলবার আফগানিস্তান মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশের। নিরপেক্ষ ভেন্যু তাজিকিস্তানের দুশানবের রিপাবলিকান সেন্ট্রাল স্টেডিয়ামের টার্ফে বাংলাদেশ সময় রাত ৮ টায় শুরু হবে ম্যাচটি। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ‘ই’ গ্রুপে আফগানদের এটা দ্বিতীয় ম্যাচ হলেও বাংলাদেশের প্রথম। ৫ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বের লড়াইয়ে গ্রুপে বাংলাদেশ ছাড়া অন্য চার দল নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলে ফেলেছে। এর মধ্যে আফগানিস্তান ৬-০ গোলে হেরেছে কাতারের বিপক্ষে আর ওমান ২-১ গোলে হারিয়েছে ভারতকে। বাছাইয়ে লাল-সবুজদের শুরুটা কেমন হয় তা দেখা যাবে দুশানবের রিপাবলিকান সেন্ট্রাল স্টেডিয়ামে ৯০ মিনিটের যুদ্ধে।

বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান প্রথম টেস্টকে ঘিরে গেল পাঁচদিন ক্রীড়াপ্রেমীদের চোখ ছিল চট্টগ্রামে। আশা-নিরাশা, আশঙ্কা ও বৃষ্টির মিশ্রণে চট্টগ্রাম টেস্ট সোমবার শেষ হয়েছে বাংলাদেশের লজ্জাজনক পরাজয়ে। টেস্ট ক্রিকেটের নবীন দেশটি পুরো পাঁচদিন ছড়ি ঘুরিয়েছে অভিজ্ঞতায় অনেক এগিয়ে থাকা বাংলাদেশের উপর। দু’দেশের প্রথম টেস্টটি কাল অতীত হয়ে গেলেও কলঙ্কের দাগটা সাকিব-মুশফিকদের গায়ে থেকে যাবে দীর্ঘদিন। চট্টগ্রামে সাকিবদের লজ্জার হারে টেস্ট ম্যাচটি শেষ হওয়ার পরই লাল-সবুজের ফুটবল অনুরাগীদের দৃষ্টি এখন বন্দর নগরী থেকে প্রায় ৩ হাজার কিলোমিটার দুরের শহর দুশানবে। চট্টগ্রাম টেস্ট শেষ হওয়ার ২৪ ঘণ্টা পেরোনোর আগেই যেখানে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ফের মোকাবেলায় নামছে। এবার ফুটবলে। বিশ্বকাপের বাছাই বলে এ ম্যাচ মর্যাদায় অ-নে-ক এগিয়ে।

বিশ্ব ক্রিকেটে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের যেমন পার্থক্য, তেমনটা ফুটবলেও। তবে ক্রিকেটে যেখানে ধারে-ভারে অনেক এগিয়ে বাংলাদেশ। সেখানে ফুটবলে ঠিক তার উল্টো। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে ৩৩ ধাপ এগিয়ে আফগানিস্তান। আফগানরা যেখানে আন্ডারডগ হিসেবে চট্টগ্রাম টেস্ট শুরু করেছিল, সেখানে দুশানবে তাদের ফুটবল দল নামবে ফেভারিটের তকমা নিয়েই।

ফিফার নিষেধাজ্ঞায় দীর্ঘ দিন আন্তর্জাতিক ফুটবলের বাইরে ছিল আফগানিস্তান। যে কারণে তাদের সঙ্গে মাঠে খুব বেশি দেখা হয়নি লাল-সবুজদের। ১৯৭৯ সালে নিষেধাজ্ঞার আগে দু’টি এবং ফিফা নিষেধাজ্ঞা কাটানোর পর চারটি সহ এখন পর্যন্ত ৬টি ম্যাচে পরস্পরের মুখোমুখি হয়েছে দু’দল। এই ছয় ম্যাচে দু’দলই জয় পেয়েছে একটি করে। বাকি চার ম্যাচ ড্র হয়েছে।

তাজিকিস্তানের আবহাওয়ার সঙ্গে খাপ খাওয়াতে এবং টার্ফের মাঠে নিজেদের মানিয়ে নিতেই ম্যাচের দশদিন আগে দুশানবে যায় বাংলাদেশ দল। সেখানে অনুশীলনের পাশাপাশি স্থানীয় প্রিমিয়ার লিগের দু’টি ক্লাবের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে জামাল ভুঁইয়া বাহিনী। যার প্রথমটিতে হারলেও দ্বিতীয় ম্যাচ ড্র করেছে বাংলাদেশ। ম্যাচের আগে সোমবার বাংলাদেশ দলের ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে তাজিকিস্তান থেকে জানান, চূড়ান্ত লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত আছে তার দল। তিনি বলেন,‘আফগানিস্তান শক্ত প্রতিপক্ষ হলেও তাদেরকে হারানো অসম্ভব নয় বলেই মনে করি আমি। আগেও বলেছি আমাদের প্রথম লক্ষ্য হলো ইতিবাচক খেলা। এরপর ম্যাচ জেতা। অবশ্যই আফগানদের হারানোর সামর্থ রয়েছে বাংলাদেশের। দলের সবাই সুস্থ আছে। ভালো ফলফলের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন ফুটবলাররা।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন