Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

বিএমডব্লিউ-মার্সিডিজ বেঞ্জ গাড়ি বাংলাদেশে তৈরির প্রস্তাব

জিএসপি সুবিধা বহাল রাখতে জার্মানি সহায়তা দেবে : অর্থমন্ত্রী

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, বিএমডব্লিউ ও মার্সিডিজ বেঞ্জ গাড়ি বাংলাদেশে তৈরির প্রস্তাব দিয়েছে জার্মানি। জার্মানি থাইল্যান্ডে যেভাবে গতিশীল উৎপাদন ব্যবস্থার মাধ্যমে অ্যাসেম্বল করে, সেভাবে এখানেও করবে। অর্থাৎ তারা বিএমডব্লিউ ও মার্সিডিজ বেঞ্জ’র কিছু পার্টস এখানেই তৈরি করবে এবং কিছু পার্টস বিদেশ থেকে নিয়ে আসবে। পরে এটা এখানে অ্যাসেম্বল করবে। বিষয়টি নিয়ে তারা প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করবেন এবং সে আলোচনার পরে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। এটি একটি খুবই উত্তম প্রস্তাব কেননা তাহলে আর আমাদেরকে ব্যয়বহুল গাড়ী আমদানী করতে হবেনা। আরেকটি ভালো প্রস্তাব হচ্ছে, তারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যে আমাদের জিএসপি সুবিধা যেন বাতিল হয়ে না যায় এ বিষয়ে তারা সর্বোচ্চ সহায়তা করবেন।

ব্যবসা-বাণিজ্যের সম্ভাবনা খতিয়ে দেখতে জার্মানির উচ্চপর্যায়ের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদল পাঁচ দিনের সফরে বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছেন, দলটি বাংলাদেশে নিযুক্ত জার্মানির রাষ্ট্রদূত পিটার ফারেনহোল্টজের নেতৃত্বে গতকাল রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে অর্থমন্ত্রীর কার্যালয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। সভা শেষে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, জার্মানীর সাথে আমাদের সম্পর্ক অত্যন্ত সুপ্রাচীন, অনেক আগেই থেকেই তারা আমাদের দেশে বিনিয়োগ করে আসছে। এই মুহূর্তে তারা আমাদেরকে প্রস্তাব দিচ্ছেন- তারা বড় আকারে আমাদের পাট শিল্পকে ব্যবহার করতে চান। আমাদের এক সময়ের প্রধান রপ্তানী আয়ের সোনালী আশ পাট শিল্প ব্যবস্থাপনা করা আমাদের জন্য অত্যন্ত কঠিন হয়ে পড়েছে, তাই এটা অত্যন্ত উত্তম প্রস্তাব। আর মার্সিডিজের ভেতরে পাটের অনেক ব্যবহার রয়েছে। জার্মানির যত গাড়ি আছে, প্রায় সব গাড়ির ভেতরে পাটের অনেক ব্যবহার হয়ে থাকে।
অ্যাসোসিয়েশন অব জার্মান চেম্বারস অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিকে সঙ্গে নিয়ে জার্মান এশিয়া-প্যাসিফিক বিজনেস অ্যাসোসিয়েশন জার্মান ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলের এ সফরের আয়োজন করেছে। এই দলে বস্ত্র, আসবাবপত্র, জাহাজ থেকে শুরু করে পরিবেশ-প্রযুক্তি, ব্যাংকিং ও পর্যটন খাতের প্রতিনিধিরা রয়েছেন।#



 

Show all comments
  • Nasir Hazary Bin Ahad ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৪৬ এএম says : 0
    Have we accepted yet? What are we waiting for. This is good opportunity for us.i hope we could on this deal.thanks
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Almamun ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৪৬ এএম says : 0
    Great NeWS
    Total Reply(0) Reply
  • Subeer Roy ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৪৬ এএম says : 0
    It would be a great initiative
    Total Reply(0) Reply
  • Shahabuddin Mohammed ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৪৬ এএম says : 0
    Very good news ! The manufacturing plant will be set-up for BMW & Mercedes bench for our wealthy people's, while the daily wages of the average people is $ 1.00
    Total Reply(0) Reply
  • Sultan Saymon ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৪৭ এএম says : 0
    it,s a one kind of jokes..because where most of the mass people can't arrives there destination because lack of public transport.
    Total Reply(0) Reply
  • Farhana Mahmud ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৪৭ এএম says : 0
    জলদি ব্যবস্থা নেয়া হোক,তা হলে উন্নয়নের রোল মডেল সবাই আরো ভালো ভাবে দেখতে পাবে!
    Total Reply(0) Reply
  • Jahedur Rashid ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৪৮ এএম says : 0
    টাকা দিয়ে যদি অস্ত্র কিনে পরাশক্তি হওয়া যেতো মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো বিশ্বে নেতৃত্ব দিতো। তেমনি প্রিমিয়াম ব্রান্ডের যন্ত্রাংশ সংযোজন করে মেড ইন বাংলাদেশ ট্যাগ লাগালেই কৃতিত্বের ভাগ দেশের হয়ে যাবে না। বড়জোর গোটি কয়েক শ্রমিকের কর্মসংস্থান হবে। লাভের অংশ ওটুকুই।যেমনটা তৈরি পোশাকশিল্পে হয়ে আসছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Nazmul Rabbi ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৪৮ এএম says : 0
    আমরা যেই দামে বালিশ, পর্দা কিনি!! ওরা ভাবছে এসব গাড়ি আমাদের কাছে কোন ব্যাপার ই নাহ!!
    Total Reply(0) Reply
  • Xahid Hasan Khan ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:৪৯ এএম says : 0
    এবার বুঝি মার্সিডিজের স্বপ্ন পূরণ হবে!
    Total Reply(0) Reply
  • Kazi Mohsen ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭:৩৭ এএম says : 0
    If production starts: S.Asia+ S.E.Asia are good market.Why negative attitude folks? It is an honor for our country.
    Total Reply(0) Reply
  • Nannu chowhan ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৮:৪৬ এএম says : 0
    I think it's a great opportunity
    Total Reply(0) Reply
  • saif ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৯:৫২ এএম says : 0
    সরকারের উচিৎ হবে এই জার্মানীকে সুজোগ দেয়া কারন আর যাই হোক এরা বিপদে পিঠ দেখাবেনা, যেমনটা করেছে সাম্প্রতিক সময়ে আমাদের বন্ধুরা (ভারত, চীন, জাপান ও রাশিয়া) তবে আমেরিকা ব্রীটেনের দিকে জুকে জাওয়া পছন্দ করিনা। কারন তারা এদেরছেয়েও নিকৃষ্ট।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অর্থমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ