Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী

সাতক্ষীরায় দুর্নীতি মামলা : কারাগারে সাবেক সিভিল সার্জন

সাতক্ষীরা জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম | আপডেট : ১২:০৪ এএম, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

দুর্নীতির মামলায় সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জন ডা. তওহিদুর রহমানকে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল সাতক্ষীরা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে তিনি আত্মসমর্পণ করলে বিচারক শেখ মফিজুর রহমান জামিন না মঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের যন্ত্রপাতি ক্রয়ের নামে ১৬ কোটি ৬১ লাখ টাকা লোপাটের মামলায় এর আগে তিনি গত ৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত উচ্চ আদালতের জামিনে ছিলেন।

জানা যায়, সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালসহ জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের ১৬ কোটি ৬১ লাখ টাকার মালামাল ক্রয়ে দুর্নীতির ঘটনায় দুদক প্রধান কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক জালালউদ্দিন বাদী হয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) খুলনা জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের পক্ষে মামলা করেন। মামলায় সাতক্ষীরার তৎকালীন সিভিল সার্জন ডা. তওহিদুর রহমানসহ ৯ জনকে আসামি করা হয়।
এ মামলায় সিভিল সার্জন ছাড়াও অপর আসামিরা হলেন, সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের তৎকালীন স্টোর কিপার একেএম ফজলুল হক, হিসাব রক্ষক আনোয়ার হোসেন, রাজধানীর ২৫/১ তোপখানা রোডের বেঙ্গল সায়েন্টেফিক অ্যান্ড সার্জিক্যাল কোম্পানির কর্ণধার ঠিকাদার মো. জাহের উদ্দিন সরকার, তার ছেলে মো. আহসান হাবিব।

জাহের উদ্দিনের বাবা মার্কেন্টাইল ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের কর্ণধার হাজী আবদুস সাত্তার সরকার এবং তার ভগ্নিপতি ইউনিভার্সেল ট্রেড কর্পোরেশনের কর্ণধার মো. আসাদুর রহমান, জাহের উদ্দিন সরকারের নিয়োগকৃত প্রতিনিধি কাজী আবু বকর সিদ্দিক, মহাখালী নিমিউ অ্যান্ড টিসির সহকারী প্রকৌশলী এএইচএম আব্দুল কুদ্দুস। মামলার আসামি হিসাব রক্ষক আনোয়ার হোসেন ইতোমধ্যে আত্মসমর্পণ করে জেল হাজতে রয়েছেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কারাগার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ