Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

ধামরাইয়ে নিখোঁজের তিন দিন পর কিশোরের লাশ উদ্ধার

ধামরাই (ঢাকা) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:৩২ এএম

ধামরাইয়ে হৃদয় সাহা (১৬) নামে এক কিশোর নিখোঁজের ৩দিন পর বংশী নদী থেকে হাত-পা বাধা ও বস্তাবন্দি অবস্থায় লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত রোববার সকাল ১১টার দিকে নিহতের বাবা ধামরাই থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। নিহত হৃদয় সাহা সোমভাগ ইউনিয়নের কান্দিকুল গ্রামের বিশ্ব সাহার ছেলে। হৃদয় সাহাকে হত্যা করে হাত ও পায়ের সাথে ইট বেঁধে প্লাষ্টিকের বস্তায় ভরে নদীতে ফেলে দেয় ঘাতকরা। বিভিন্ন স‚ত্রে জানা যায়, নিহত হৃদয় মাদক সেবন করত এবং বিক্রির সাথে জড়িত ছিল। শুধু তাই নয় সে এলাকার বিভিন্ন মাদকসেবী ও বিক্রেতাকে পুলিশে ধরিয়ে দিত।
গত শুক্রবার বিকেলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি হৃদয়। এ বিষয়ে খোঁজাখুঁজির ২দিন পর থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। এদিকে রোববার সন্ধ্যার পর বংশী নদীর শরীফবাগ-কান্দিকুল এলাকায় বাঁশের সেতুর নীচে একটি লাশ ভাসতে দেখেন স্থানীয়রা। তারা পুলিশে খবর দেন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিলে তা হৃদয়ের বলে শনাক্ত হয়।
বিশ্বনাথ সাহা বলেন, শুক্রবার বেলা ৩ টার দিকে হৃদয়ের মোবাইলে একটি কল আসে। কে বা কারা হৃদয়কে বাড়ির বাইরে ডেকে নেয়। এরপর থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যাচ্ছিল। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে তার সন্ধান মেলেনি। এ অবস্থায় থানায় জিডি করা হয়। হৃদয়ের স্বজনরা জানান, নদী থেকে লাশ উদ্ধারের পর হৃদয়ের শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে। স্থানীয়ভাবে মাদক সংক্রান্ত বিরোধ হত্যার নেপথ্যে কাজ করতে পারে বলে ধারণা পুলিশের। আবার কিশোরদের মাঝে তর্ক অথবা আর্থিক লেনদেনে এ হত্যাকান্ড ঘটতে পারে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন