Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে ১০ লাখ টাকা পেলো চট্টগ্রামের ব্যবসায়ী

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশের সময় : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৫:০৯ পিএম

দেশব্যাপী চলমান ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-৪ এর আওতায় ফ্রিজ ক্রেতাদের ‘কে হবেন আজকের মিলিয়নিয়ার’ শীর্ষক সুবিধা দিচ্ছে ওয়ালটন। এর আওতায় সম্প্রতি ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে ১০ লাখ টাকা পেয়েছেন চট্টগ্রামের ব্যবসায়ী আনিস উল আলম । আরেকজন ক্রেতা পেয়েছেন ১ লাখ টাকা।

সম্প্রতি বন্দর নগরীর আগ্রাবাদে ওয়ালটনের পরিবেশক প্রতিষ্ঠান ‘কেএসটিএল এন্টারপ্রাইজ’ এর সাব-ডিলার ‘ভিআইপি ইলেকট্রনিক্স’ থেকে একটি ডিপ ফ্রিজ (ফ্রিজার) কিনেন ব্যবসায়ী আনিস উল আলম। ফ্রিজটি তিনি রেজিস্ট্রেশন করেন। এরপর ওয়ালটনের কাছ থেকে পান ১০ লাখ টাকা পাওয়ার ম্যাসেজ পান।

এদিকে একই শোরুম থেকে ওয়ালটনের রেফ্রিজারেটর কিনে ১ লাখ টাকা পেয়েছেন একটি বেসরকারি ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানির সিনিয়র মেডিক্যাল প্রোমোশনাল অফিসার ওহিদুর রহমান।

ওয়ালটনের পক্ষ থেকে নির্বাহী পরিচালক উদয় হাকিম ও আরিফুল আম্বিয়া বিজয়ীদের হাতে চেক তুলে দেন। সেসময় আরো উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় শিল্পপতি কাজী মনসুর উদ্দিন ও রেজাউল কবীর, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মো. সালাউদ্দিন, কেএসটিএল এন্টারপ্রাইজের সত্ত্বাধিকারী মো. আব্দুল কাদের খান প্রমূখ।

ফ্রিজ কিনে ১০ লাখ টাকা পাওয়ার প্রতিক্রিয়ায় ক্রেতা আনিস উল আলম বলেন, ‘খুব ভালো লাগছে। আগে বিভিন্ন কোম্পানির অফারের বিজ্ঞাপন দেখলে ভাবতাম- এগুলো সাধারণ ক্রেতারা পায়না। কোম্পানিরই পছন্দের কাউকে দেয়া হয়। তাই, ওয়ালটনের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা পাওয়ার এসএমএস পেয়ে বিশ্বাস করিনি। এমনকি শোরুমের ম্যানেজার ফোন করে বলার পরও বিশ্বাস হয়নি। কিন্তু, যখন তারা বাসায় এসে বিষয়টি নিশ্চিত করলো, তখন খুশিতে মন ভরে উঠে।

তিনি আরো বলেন, ওয়ালটন আমাদের গর্ব। এক দশক আগেও ইলেকট্রনিক্স পণ্য কেনার ক্ষেত্রে আমদানির উপর নির্ভর করতো হতো। সেসময় অনেক ক্ষেত্রে বেশি টাকা দিয়েও মানসম্মত পণ্য পেতাম না। এখন ওয়ালটন দেশেই ইলেকট্রনিক্স পণ্য তৈরি করায় সেই আমদানি নির্ভরতা যেমন কমেছে, তেমনি সাশ্রয়ী দামে ভালো মানের পণ্য পাচ্ছি।

ওয়ালটন ফ্রিজ কেনা প্রসঙ্গে তার স্ত্রী মাহমিদা আলম বেলি বলেন, কয়েক বছর আগে ওয়ালটনের একটি রেফ্রিজারেটর কিনেছিলাম। সেই ফ্রিজটি ভালো সার্ভিস দিচ্ছে। ডিপ অংশে বরফ জমে ভালো। আবার নরমাল অংশে রয়েছে আলাদা শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা। খাবারও গন্ধ হয়না। তাই এবার ডিপ ফ্রিজ কেনার ক্ষেত্রে ওয়ালটনকেই বেছে নিলাম।

উল্লেখ্য, অনলাইনে দ্রুত বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিত করতে কাস্টমার ডাটাবেজ তৈরি করছে ওয়ালটন। সেজন্য সারা দেশে ডিজিটাল ক্যাম্পেইন চালাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। ওই ক্যাম্পেইনে ক্রেতাদের উদ্বুদ্ধ করতে ‘কে হবেন আজকের মিলিয়নিয়ার’ সুবিধা ঘোষণা করে ওয়ালটন। এ সুযোগ থাকবে ৩০ শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। এর আওতায় ইতোমধ্যেই ২০ জনেরও বেশি ক্রেতা মিলিয়নিয়ার হয়েছেন। অসংখ্য ক্রেতা ১ লাখ টাকা করে পেয়েছেন। এছাড়া বিভিন্ন অঙ্কের নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচারসহ ফ্রিজ, টিভি ও নানান ধরনের ইলেকট্রনিক্স পণ্য ফ্রি পেয়েছেন হাজার হাজার ক্রেতা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ওয়ালটন ফ্রিজ
আরও পড়ুন