Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

তনুশ্রীর এই প্রশ্নের কি জবাব দেবেন আমির

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬:০৯ পিএম

ভারতীয় সংগীত মুঘল গুলশান কুমারের বায়োপিকে অভিনয় করবেন আমির খান। ‘মুঘল’ নামের এই সিনেমাটি প্রযোজনা করবেন আমির পত্নী কিরণ রাও। এটি পরিচালনা করবেন সুভাষ কাপুর। আরও আগেই সিনেমাটিতে অভিনয় করার জন্য পরিচালকের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন আমির। কিন্তু সুভাষ কাপুরের নামে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ থাকায় আমির খান সিদ্ধান্ত নেন তিনি আর সুভাষের কোনো সিনেমাতেই অভিনয় করবেন না।

কিন্তু সম্প্রতি আমির খান সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছেন। আর এ কারণে মিস্টার পারফেক্টশনিস্টকে নিয়ে বলিউডের অন্দর মহলে চলছে জোর সমালোচনা। আমিরের এমন সিদ্ধান্তে ক্ষোভে ফেটে পড়ছেন কেউ কেউ। এই তালিকার শীর্ষেই অবস্থান মিটু আন্দোলনের অন্যতম অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত।

সম্প্রতি আমির খান ভারতীয় একটি গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন সুভাষ কাপুরের সিনেমাতে অভিনয় করা প্রসঙ্গে। শুধু তাই নয়, কেনো তিনি সুভাষের সিনেমাতে অভিনয় করবেন সেই সম্পর্কেও একটি লিখিত বক্তব্য প্রকাশ করেছেন গণমাধ্যমে। আমির খান জানিয়েছেন, ‘আমি যখন সুভাষের সঙ্গে কাজ করতে যায় তখন তার নামে একটি মামলা রয়েছে সেটা জানতাম না। যখন শুনেছি তখন কাজ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। আমি সুভাষের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিলে তার পরিচালনায় কাজ করতে অনিহা দেখায় ইন্ডাস্ট্রির অনেকে। অথচ সুভাষের ওই মামলাটির রায় এখনও ঘোষণাই হয়নি। তিনি দোষী নাকি নির্দোষ সেটাও এখনও প্রমাণ হয়নি। এখনও যে মামলার রায়ই ঘোষণা হয়নি সেই মামলার কারণে তাকে কেনো কষ্ট দিতে হবে! কেনো তার রুজিতে আঘাত দিতে হবে?’

আমির খান আরও বলেন, ‘প্রায় এক সপ্তাহ ধরে আমি এবং আমার স্ত্রী কিরণ রাও ভেবে চিন্তেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি চাই না আমার জন্য কোনো ব্যক্তি কষ্টে থাকুক। সে দোষী প্রমাণিত হলে পরবর্তীতে ভাবা যাবে ভবিষ্যতের বিষয় নিয়ে।’

আমির খানের এমন বক্তব্যের পর রীতিমতো ফেটে পড়ছেন তনুশ্রী দত্ত। তিনি আমিরকে প্রশ্ন রেখে বলেছেন, ‘আমার প্রতি আপনার কোনো সহানুভূতি নেই আমির? আপনি জানেন আমি এখন কাজ হারা। ইন্ডাস্ট্রির বড় কোনো পরিচালক আমাকে কাজে নেন না। আপনার কি তাহলে যৌন নিপীড়নের প্রতি যথেষ্ট সমর্থন আছে?’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বলিউড


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ