Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

পাকিস্তানের অভিযোগ অস্বীকার করল শ্রীলঙ্কা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৮:৪৬ পিএম

অনেক দর কষাকষির পর পাকিস্তানের মাটিতে সীমিত ওভারের সিরিজ খেলতে রাজি হয়েছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (এসএলসি)। তবে নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে লঙ্কান দলের শীর্ষ দশ ক্রিকেটার পাকিস্তান সফর থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেন। এরপরই পাকিস্তানের মন্ত্রী ফাওয়াদ হোসেন চৌধুরী অভিযোগ করে বলেন, লঙ্কান খেলোয়াড়দের এমন সিদ্ধান্তের পিছনে কলকাঠি নেড়েছে ভারত। ভারতের হুমকির কারণেই লঙ্কান খেলোয়াড়দের এমন সিদ্ধান্ত। তবে পাকিস্তানের এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন শ্রীলঙ্কার ক্রীড়া মন্ত্রী হারিন ফার্নান্দো। ২০০৯ সালের দুর্ঘটনার কারণেই কতিপয় খেলোয়াড় পাকিস্তান যেতে অস্বীকার করেছেন বলে এক টুইট বার্তায় জানান তিনি।

২০০৯ সালে লাহোরে গাদ্দাফি স্টেডিয়ামের কাছে শ্রীলঙ্কা দল বহনকারী বাসে জঙ্গি হামলায় আট ব্যক্তি নিহত ও লঙ্কান দলের খেলোয়াড়সহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছিল। মঙ্গলবার ফার্নান্দো এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘পাকিস্তানের মাটিতে শ্রীলঙ্কান খেলোয়াড়দের না খেলতে ভারত উদ্বুদ্ধ করেছে বলে যে খবরটি বেরিয়েছে তা সত্য নয়। মূলত ২০০৯ সালের ঘটনার কারণেই কিছু খেলোয়াড় পাকিস্তান না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তাদের সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আমরা এমন খেলোয়াড়দের নিয়েছি যাদের পাকিস্তান যেতে রাজি আছে। আমাদের দলটি পূর্ণ শক্তির এবং পাকিস্তানের মাটিতেই আমরা তাদের হারানোর আশা করছি।’

২০০৯ সালে হামলার পর শ্রীলঙ্কা দল কখনো পাকিস্তান সফর করেনি। তারপর এটাই হতে যাচ্ছে তাদের প্রথম সফর।

আগামী ২৭সেপ্টেম্বর পাকিস্তান সফর শুরু হওয়ার আগে এসএলসির নিরাপত্তা ব্রিফিংয়ের পর টি-২০ অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ, দিনেশ চান্দিমাল, সুরাঙ্গা লাকমল, দিমুথ করুনারতেœ, থিসারা পেরেরা, আকিলা ধনঞ্জয়া, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, কুশল পেরেরা এবং নিরোশান ডিকবেলাসহ শীর্ষ দশ ক্রিকেটার নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নেন।

পাকিস্তান সফরে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-২০ ম্যাচ খেলবে শ্রীলঙ্কা দল।

এদিকে পাকিস্তান সফরে যেতে রাজি না হওয়ায় ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (সিপিএল) খেলতে যেতে অনুমতি পাননি থিসারা পেরেরা ও নেরাশান ডিকবেলা। পাকিস্তান সফরে না যাওযার কারণেই তাদেরকে সিপিএল খেলতে অনুমতি দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন বোর্ডের এক কর্মকর্তা।

এসএলসি নির্বাহী কর্মকর্তা এ্যাশলে ডি সিলভা জানান, ‘এটাই হচ্ছে আমাদের নিয়ম। যখন সামনে জাতীয় দলের কোনো ট্যুর থাকে আর কোনো খেলোয়াড় খেলতে যেতে না চায়, তাহলে তাকে আমরা ভিন্ন কোনো দেশের লিগে খেলতে যেতে অনুমতি দেই না।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক্রিকেট


আরও
আরও পড়ুন