Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

দ্রোহের আগুনে জাতীয় পার্টি

হালিম আনছারী, রংপুর থেকে | প্রকাশের সময় : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০৪ এএম | আপডেট : ১২:১৭ এএম, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা নির্বাচনসহ রংপুর-৩ আসনের প্রার্থী নিয়ে দ্রোহের আগুনে পুড়ছে জাতীয় পার্টি। জিএম কাদের ও রওশন এরশাদের বিরোধ দৃশ্যতঃ মিটে গেলেও রংপুর-৩ আসনের উপ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থিতা নিয়ে নেতাকর্মীদের মাঝে এই আগুন ক্রমেই তীব্রতর হতে শুরু করেছে।
আর সেই দ্রোহের আগুন প্রকাশ্যে রূপ উপ-নির্বাচনে রওশন পুত্র রাহুগির আল মাহির সাদ এরশাদকে মনোনয়ন দেয়ার ফলে। সাদ’র বিষয়টি এখনো মেনে নিতে পারেননি মহানগর জাপার সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আহমেদ ও এরশাদের ভাতিজা আসিফ শাহরিয়ারসহ তৃণমূলের সাধারণ নেতাকর্মীরা। এর প্রেক্ষিতে কার্যত ৩ ভাগে বিভক্ত হয়েছে রংপুর জাতীয় পার্টি।
এরশাদের ছোট ভাই মোজাম্মেল হোসেন লালু (সাবেক এমপি)’র ছেলে সাবেক এমপি আসিফ শাহরিয়ার ছাড়াও জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফখর-উজ-জামান জাহাঙ্গীর এবং মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক এস এম ইয়াসির উপ-নির্বাচনে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছিলেন। এর মধ্যে এর মধ্যে এস এম ইয়াসিরের মনোনয়নের বিষয়টি চ‚ড়ান্ত হলেও শেষ মুহুর্তে গিয়ে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে সাদ এরশাদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়। এ নিয়ে সিটি মেয়র এবং মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা সরাসরি সাদ’র পক্ষে কাজ না করার ঘোষণা দেন। সাদ এরশাদকে চ‚ড়ান্ত প্রার্থী করায় ফখর উজ জামান জাহাঙ্গীর এবং এস এম ইয়াসির আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান। আর এরশাদের ভাতিজা আসিফ শাহরিয়ার স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করার ঘোষণা দেন।
জি এম কাদেরপন্থীরা বলছেন, প্রেসিডিয়াম ও এমপিদের যৌথসভা করে সিদ্ধান্ত হলো ব্যারিস্টার আনিস ও ফখরুলকে অব্যাহতি দেয়ার। কোনোরূপ আলোচনা না করেই এ সিদ্ধান্ত স্থগিত করা হলো। পার্টির এ সিদ্ধান্তে বৈঠকে উপস্থিত সিনিয়র ৩৪ জন নেতাকে অপমান করা হয়েছে। এ ছাড়া যে ব্যক্তি পার্টি অফিসে মনোনয়নপত্রই জমা দেননি এমনকি আমাদের মনোনয়ন বোর্ডে সাক্ষাৎকার দেননি তাকেই মনোনয়ন দেয়া হলো। এতে করে বৃহত্তর রংপুরের তৃণমূলের আস্থা হারিয়েছেন জি এম কাদের।
রংপুর মহানগর জাপার সাধারণ সম্পাদক এস এম ইয়াসির বলেন, জি এম কাদের যদি নিজের অবস্থান শক্ত করতে না পারেন তাহলে দল শক্তিশালী করা তার পক্ষে কঠিন হবে। আমাকে মনোনয়ন বোর্ড সিলেক্ট করে পরে আবার সাদকে মনোনয়ন দেয়া হলো। মনোনয়ন পরিবর্তন করে শুধু আমাকেই নয় রংপুরবাসীকেও অপমান করা হয়েছে।
এরশাদের ভাতিজা আসিফ শাহরিয়ার বলেন, দল বারবার ভুল সিদ্ধান্ত গ্রহণের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তাই আমি পরিবারের সদস্য এবং জাপার সাবেক একজন এমপি হিসেবে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাতীয় পার্টি

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
২৪ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ