Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

চট্টগ্রামে শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডে ৮ মাসে ১৬ শ্রমিকের মৃত্যু

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

 চট্টগ্রামে শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডে চলতি বছরের ৮ মাসে দুর্ঘটনায় ১৬ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। গত সাড়ে তিন বছরে মারা গেছেন ৬৬ জন। ‘জাহাজ-ভাঙ্গা শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন ফোরাম’ নামে একটি সংগঠন গতকাল বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে এমন তথ্য জানিয়েছে। জাহাজ ভাঙ্গা শিল্পে নিরাপদ কর্মপরিবেশ নিশ্চিতে ১০ দফা দাবি দিয়েছে সংগঠনটি। সাতদিনের মধ্যে দাবি মেনে না নিলে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণার হুঁশিয়ারি দেয়া হয়।

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে আয়োজিত এ সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক শফর আলী। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন আহ্বায়ক তপন দত্ত ও যুগ্ম আহ্বায়ক এ এম নাজিম উদ্দিন। শফর আলী বলেন, সীতাকুন্ডে ১৫০টির বেশি শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডের নিবন্ধন আছে, কিন্তু কাজ চলছে ৫০-৬০টি ইয়ার্ডে। এসব ইয়ার্ডে সরাসরি কাজ করে প্রায় ২৫ হাজার শ্রমিক। পরোক্ষভাবে ৬০ হাজার মানুষ এই শিল্পের সঙ্গে যুক্ত। নিরাপদ কর্মপরিবেশ না থাকায় প্রতিনিয়ত শ্রমিকেরা দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন। শফর আলী বলেন, চলতি বছরে শ্রমিকের মৃত্যু অতীতের সকল রেকর্ড ভেঙেছে। একজন শ্রমিকের মৃত্যুর দায়ও ইয়ার্ডের মালিকেরা এড়াতে পারেন না। অথচ মালিকদের বিরুদ্ধে কখনোই কোনো আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয় না। শ্রমিকদেরও ক্ষতিপূরণ দেয়া হচ্ছে না।

সংবাদ সম্মেলনে নিহত শ্রমিকদের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা ও আহতদের ১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ, শ্রমিকদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা সরঞ্জাম প্রদান, ডাটাবেজ সংরক্ষণ, কাটার আগে জাহাজকে সম্পূর্ণভাবে বর্জ্যমুক্ত করা, শ্রমিকদের মাসিক মজুরি ন্যুনতম ১৬ হাজার টাকা ও দৈনিক ৬১৫ টাকা নিশ্চিত করার দাবি জানানো হয়।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মৃত্যু


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ