Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী সহযোগী মা ও সৎ বাবা

মাদারীপুরে দেড় বছরের শিশুসহ শিকার আরো ১০ : আটক ১১

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

ধর্ষণের পর অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে এক স্কুলছাত্রী। এ কাজে সহযোগী ছিলেন খোদ ওই ছাত্রীর মা ও সৎ বাবা। এমন ঘৃণ্য ঘটনা ঘটেছে ঝালকাঠিতে। পঞ্চগড়ে মুসলিম হওয়ার আশ্বাসে ৫ বছর ধরে ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে হিন্দু গৃহশিক্ষক। রাজধানী ঢাকায় সাত বছর, মাদারীপুরে দেড় বছর ও পঞ্চগড়ে সাত বছরের শিশুকে নির্মমভাবে যৌন নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। টাঙ্গাইলের ঘরে ঢুকে হাত-মুখ বেঁধে ৭ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া হবিগঞ্জের বন্ধুকে মারপিট করে তরুণী, আশুলিয়ায় গার্মেন্টকর্মীসহ ২ তরুণী, গাজীপুরের নাতনি ও চাকরি দেয়ার কথা বলে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। এদিকে, চট্টগ্রামের আনোয়ারায় চার সন্তানের জননীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত একজনসহ বিভিন্ন ধর্ষণ মামলায় ১১ জনকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

ঢাকা : রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে ৭ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় মো. নাজিম মিয়া (২৫) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পাশাপাশি ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই শিশুটিকে দুই ব্যাগ রক্তও দিয়েছে পুলিশ। গ্রেফতার নাজিম মিয়া সম্পর্কে শিশুটির প্রতিবেশী। গতকাল বুধবার সকালে মুন্সীগঞ্জ জেলা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগ।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সোমবার বিকেলে কামরাঙ্গীরচর থানার মধ্য ইসলামনগর এলাকার একটি বাড়িতে নাজিম ৭ বছরের এক শিশুকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। এতে শিশুটি মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়ে। ওইদিনই কামরাঙ্গীরচর থানা পুলিশ ও তার পরিবার শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক ছিলেন নাজিম। এ ঘটনায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কামরাঙ্গীরচর থানায় একটি মামলা করা হয়।

ঝালকাঠি : ঝালকাঠিতে ষষ্ঠ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা ও সৎবাবাকে আটক করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে ঝালকাঠি সদর থানা হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। আটকরা হলেন- ওই ছাত্রীর মা সাহেরা আক্তার কাজল ও সৎবাবা মো. আলম। রাতেই শহরের কালীবাড়ি সড়ক এলাকার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে পুলিশ।

ঝালকাঠি সদর থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) মো. আবু তাহের মিয়া জানান, শহরের কাঠপট্টি এলাকার মায়ের বাড়িতে গত কয়েক মাস আগে মা ও সৎবাবার সহযোগিতায় মেয়েটির সঙ্গে কয়েকজন পুরুষ শারীরিক সম্পর্কে মিলিত হয়। তার মা ও সৎবাবা তাকে এ অনৈতিক কাজে বাধ্য করে। আর এতে মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। গতকাল ডাক্তারি পরীক্ষা ও চিকিৎসার জন্য তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হবে। ঘটনার তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলায় ঘরে ঢুকে ৭ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার রাতে অভিযুক্ত ধর্ষক ছানোয়ারকে (১৬) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত সোমবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে উপজেলার লাউহাটি গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার শিকার ওই ছাত্রী লাউহাটি এম আজহার মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে।

গাজীপুর : গাজীপুরের পুবাইলে সামসুল আলম নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ১৩ বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষক সামসুল আলম ওই এলাকার মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে এবং শিশুটির মায়ের আপন মামা। অর্থাৎ সম্পর্কে শিশুটির নানা। এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে পুবাইল থানায় একটি মামলা করেছেন।

এদিকে, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কোনাবাড়ী এলাকায় চাকরি দেওয়ার কথা বলে এক কিশোরীকে (১৫) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার রাতে মো. জাহাঙ্গীর আলম (৩০) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জাহাঙ্গীর আলম নেত্রকোনার কমলাকান্দা থানার শিবপুর এলাকার মো. মানিক মিয়ার ছেলে। তিনি কোনাবাড়ীর পারিজাত এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন।

শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) : হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে বন্ধুর সঙ্গে ঘুরতে আসা এক তরুণী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় ধর্ষকসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। গত সোমবার দিবাগত রাতে উপজেলার ওলিপুর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটকরা হলেন হবিগঞ্জ সদর উপজেলার সানাবই গ্রামের আছকির মিয়ার ছেলে ধর্ষক সোহেল মিয়া (৩০), একই উপজেলার মথুরানগর গ্রামের নাসিম উদ্দিনের ছেলে জাহাঙ্গীর মিয়া (৩১) ও শায়েস্তাগঞ্জের সুরাবই গ্রামের আবু মিয়ার ছেলে সিরাজ মিয়া (৪৫)। পুলিশ ও স্থানীয় স‚ত্রে জানা গেছে, সোমবার রাত ১০টার দিকে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থেকে ঘুরতে আসা ওই তরুণী তার বন্ধুর সঙ্গে সুরাবই এলাকায় রাস্তা দিয়ে হাটছিলেন। এ সময় বন্ধুকে মারপিট করে মেয়েটিকে একটি রুমে নিয়ে প্রথমে সোহেল তাকে ধর্ষণ করে। অন্যরা মেয়েটিকে ধর্ষণ করার আগেই বিষয়টি জানতে পেরে স্থানীয়রা এসে তিনজনকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে সোহেল, জাহাঙ্গীর ও সিরাজকে আটক করে।

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামের আনোয়ারায় চার সন্তানের জননীকে ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষণের অভিযুক্ত ইলিয়াছ প্রকাশ ইলুকে (৩০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। ইলিয়াছ উপজেলার বারশত ইউনিয়নের বোয়ালীয়া গ্রামের জাগির পাড়া আব্দুর রশিদের বাড়ির কোরবান আলীর ছেলে। তিনি পেশায় একজন সিএনজি অটোরিকশা চালক। অভিযুক্ত ইলিয়াছ বলেন, ওই নারীর সঙ্গে স্থানীয় ইসহাকের ছেলে এয়ার মোহাম্মদের মধ্যে অনৈতিক সম্পর্ক দীর্ঘ দিনের। আমি তাদের অনৈতিক কর্মকান্ড দেখে ফেলায় আমাকে মিথ্যা অভিযোগে মামলা দেয়।

পঞ্চগড় : পঞ্চগড়ে দুটি ধর্ষণের ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ১০ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে জগদীশ চন্দ্র (৩০) নামে গৃহশিক্ষককে এবং সাত বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে আশরাফ আলী (৫৫) নামে এক রাজমিস্ত্রিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করার প্রলোভন দেখিয়ে ৫ বছর ধরে এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে এক গৃহশিক্ষকের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় ওই শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জগদীশ চন্দ্র ঠাকুরগাঁও জেলার রানী শংকৈল উপজেলার মহল বাড়ি এলাকার সুরেন চন্দ্রের ছেলে।

দশম শ্রেণি পড়ুয়া ছাত্রীর পরিবার জানায়, হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করার প্রলোভন দেখিয়ে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ার সময় থেকেই ওই কিশোরীর সাথে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে গৃহশিক্ষক জগদিশ। ওই কিশোরীর পরিবারের সদস্যরা বাইরে কাজ করেন। তাই বাড়িতে কেও না থাকার সুযোগে ছাত্রীর বাড়িতে দৈহিক সম্পর্ক চালিয়ে যায় জগদীশ। স¤প্রতি ওই কিশোরী তাকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায় গৃহশিক্ষক। এ ঘটনায় ওই কিশোরীর বড় ভাই মঙ্গলবার পঞ্চগড় সদর থানায় ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা করেন। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে পুলিশ মঙ্গলবার জগদিশকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

এদিকে, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলা শহরের পশ্চিম মোলানি এলাকার আশরাফ আলী নামে রাজমিস্ত্রিকে সাত বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আশরাফ শিশুটির সম্পর্কে প্রতিবেশী দাদা। প্রতিবেশী হওয়ায় শিশুটি আশরাফের বাড়িতে খেলতে যেত। বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে শিশুটিকে ধর্ষণ করে আশরাফ।

সাভার : ঢাকার সাভারে আশুলিয়ায় গভীর রাতে পৃথক ঘটনায় এক গার্মেন্টকর্মীসহ দুই তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় পুলিশ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে। উভয় ঘটনায় আশুলিয়া থানায় পৃথক দুটি মামলাও দায়ের করা হয়েছে। গত সোমবার দিবাগত গভীর রাতে উত্তর গাজীরট ভূইয়াপাড়া এলাকার ফজল ভূইয়ার মালিকানাধীন বাড়ি ও পরিত্যক্ত কারখানায় পৃথক ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। গত মঙ্গলবার উভয় ঘটনায় আশুলিয়া থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীরা।

গার্মেন্টকর্মী তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতারকৃতরা হলো, শেরপুর জেলার সদর থানার সাতমাড়িয়া গ্রামের মৃত মুরাদ হোসেনের ছেলে কাইয়‚ম ও পাবনা জেলার ঈশ্বরদী থানার মুসোরিয়া গ্রামের নুর মোহাম্মদের ছেলে তুহিন আলম। তুহিন ফজল ভূইয়ার বাড়ির ম্যানেজার। এছাড়া অপর তরুনী ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতারকৃত হচ্ছে- বি-বাড়িয়া জেলার কসবা থানার গানপুর গ্রামের আলী হোসেনর ছেলে সারফিন।

মাদারীপুর : মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার চুয়ারিবাড়ী এলাকায় গত মঙ্গলবার এক আত্মীয়ের দ্বারা দেড় বছরের শিশু ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শিশুটিকে সঙ্কটাপন্ন অবস্থায় সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভুক্তভোগী শিশুর মা সাংবাদিকদের জানান, তাদেরই আত্মীয় চৌরাশি বাজিতপুর গ্রামের সুশেন ভক্তের ছেলে হৃদয় ভক্ত (২১) শিশুটিকে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে যায়। তাকে কোলে করে ঘরের বাইরে নিয়ে ধর্ষণ করে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে শিশুটি চিৎকার করলে প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে।



 

Show all comments
  • Mannan Molla ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:২৯ এএম says : 0
    মায়ের কাছে যদি সন্তান নিরাপদ না থাকে,তাহলে কোথায় নিরাপদ???
    Total Reply(0) Reply
  • Roni Miah ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:২৯ এএম says : 0
    কি চলছে দেশে এসব। আর শুনতে পারছি না
    Total Reply(0) Reply
  • Loknath Barmon ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:২৯ এএম says : 0
    এদের ফাসিতে এক মাস ঝুলিয়ে মারার সাজা হওয়া দরকার।
    Total Reply(0) Reply
  • MD Sumon Akhaura ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:৩০ এএম says : 0
    এসব মা-বাবা দুনিয়ার থাকা দেখে মরে যাওয়া অনেক ভালো
    Total Reply(0) Reply
  • Dr.haidar ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:৩০ এএম says : 0
    এমনটি কোন মাতা হতে পারেনা।সুষ্ঠু তদন্তের প্রমানিত হলে মৃত্যু দন্ড দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করা হোক।
    Total Reply(0) Reply
  • Tohafat ullah ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:৩০ এএম says : 0
    They should be hanged in open place.
    Total Reply(0) Reply
  • মিশূ ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:৩১ এএম says : 0
    এটাই যদি দেশের বর্তমান অবস্থা হয় তাহলে মেয়েদের নিরাপত্তাকার কাছে....????
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন