Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

সাঁড়াশি অভিযানে নিরীহরা গ্রেফতার হওয়ায় উদ্বেগ ইসলামী আন্দোলন ও ঐক্য আন্দোলনের

প্রকাশের সময় : ১৩ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : পবিত্র মাহে রমজানে সাঁড়াশি অভিযানে নিরীহ মানুষ, আলেম ও নিরাপরাধীরা গ্রেফতার হওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ইসলামী আন্দোনের আমির মুফতি সৈয়দ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই ও ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের আমির ড. মাও. ইশা শাহেদী।
তারা সাম্প্রতিক হত্যাকাÐে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, চরমপন্থা, গুপ্তহত্যা নিরীহ নিরাপরাধ মানুষ হত্যার কোনো সুযোগ ইসলামে নেই। তাই ইসলামের আদর্শ প্রতিষ্ঠায় সকলকে একজোট হতে হবে।
ইসলামী আন্দোলন
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, দেশে অজানা আতঙ্ক বিরাজ করছে। জঙ্গি দমনের নামে পরিচালিত সাঁড়াশি অভিযানে নিরীহ রোজাদার, আলেম এবং সাধারণ মানুষও গ্রেফতার হচ্ছে। রমজান মাসেও নির্বিগ্নে আত্মশুদ্ধি অর্জনের পরিবেশ নেই। এ ধরনের গর্হিত কাজ থেকে বিরত থাকতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি তিনি আহŸান জানান। পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, আত্মশুদ্ধির মহান এ মাসে নিজেকে আল্লাহর রঙে রঙিন করে ইসলামী অনুশাসন কায়েমে ভূমিকা রাখার কথা ছিল, কিন্তু পারিপাশ্বিক কারণে তা হচ্ছে না। তিনি বলেন, মানুষের কল্যাণই ইসলামের মূল লক্ষ্য। চরমপন্থা বা সন্ত্রাস ইসলাম পছন্দ করে না। তিনি বলেন, শান্তি, মুক্তি ও কল্যাণ পেতে ইসলামের সুমহান আদর্শে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। গতকাল (রোববার) সকালে বরিশালের চরমোনাই মাদরাসা ময়দানে ১৫ দিনব্যাপী বিশেষ তালিম তারবিয়াতের ৬ষ্ঠ দিনের আলোচনায় পীর সাহেব চরমোনাই উপরোক্ত কথা বলেন। এতে পীর সাহেব চরমোনাই ছাড়াও প্রিন্সিপাল মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী, নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম, মাওলানা মুজিবুর রহমান কালিশ্বরীসহ চরমোনাইর খলিফাগণ আলোচনা করেন।
ইসলামী ঐক্য আন্দোলন
ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের মজলিসে আমলের (কর্মপরিষদ) মাসিক বৈঠকে পবিত্র মাহে রমযানের পবিত্রতা রক্ষার্থে সাঁড়াশি অভিযানের নামে সাধারণ মানুষের হয়রানি বন্ধের দাবি জানানো হয়। বৈঠকে বলা হয়, সাম্প্রতিক হত্যাকাÐসমূহ রোযার ভাবগাম্ভীর্য নষ্ট করার গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে ইসলামবিরোধী শক্তির দ্বারা সংগঠিত কি না তা খতিয়ে দেখতে হবে। নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, ইসলামবিরোধী শিক্ষানীতি ও প্রস্তাবিত শিক্ষা আইন বাতিল করা না হলে দেশে ইসলামী শিক্ষা, মুসলিম জাতি সত্তার চেতনা এবং ইসলামের অস্তিত্ব বিপন্ন হয়ে পড়বে। কাজেই এ বিষয়ে কোনো আপোষ নয়। তৌহিদী জনতাকে নিয়ে কঠিন আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।
গতকাল রোববার বিকেলে আন্দোলনের মুহতারাম আমির ড. মওলানা ঈসা শাহেদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির মওলানা রুহুল আমীন, সেক্রেটারি জেনারেল ড. এনামুল হক আজাদ, জয়েন্ট সেক্রেটারি অধ্যাপক মোস্তফা তারেকুল হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হুসাইন, কেন্দ্রীয় অর্থ-সম্পাদক মোস্তফা শহীদুল হক, মহানগরী নায়েবে আমির মাওলানা ফারুক আহমদ, মাওলানা মাহফুজুর রহমান, মাওলানা আবুবকর সিদ্দিক, মাওলানা মুহিব্বুল্লাহ ভূঞা প্রমূখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ