Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

নিখোঁজের ৩৮ দিন অতিবাহিত হলেও স্কুল ছাত্র আশরাফুলকে খুঁজে বের করতে পারেনি পুলিশ

মানিকগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৩:৫০ পিএম

নিখোঁজ স্কুলছাত্র আশরাফুলকে উদ্ধারের দাবীতে আজ (শনিবার) সকালে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার কাফাটিয়া বাজার সংলগ্ন সড়কে মানববন্ধন করেছে তার সহপাঠী, শিক্ষক, এলাকাবাসী ও স্বজনরা।

আশরাফুল ইসলাম স্থানীয় কাফাটয়িা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র এবং ধল্লা-কাফাটিয়া গ্রামের সউদী প্রবাসী মোহাম্মদ আলীর একমাত্র ছেলে। সে । ৬ আগষ্ট বিকেলে বাড়ি থেকে প্রাইভেট পড়ার কথা বলে মোটর সাইকেল নিয়ে বের হওয়ার পর সে অপহরণ হয় বলে জানায় আশরাফুলের পরিবার।

গতকাল১৪ সেপ্টম্বও সকাল ১১টায় বেতিলা-বালিরটেক সড়কের দুইপাশে করা মানববন্ধনে অংশ নেয় নিখোঁজ ছাত্র আশরাফুলের পিতা মোহাম্মদ আলী, মা ফাতেমা বেগম, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক এবং এলাকাবাসী।

আশরাফুলের মা ফাতেমা বেগম বলেন, ৬ আগষ্ট বিকেল ৪টার দিকে তার ছেলে প্রাইভেট পড়ার কথা বলে বাড়ি থেকে তার সুজুকি মোটর সাইকেল নিয়ে বের হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে আশরাফুল তার মোবাইল ফোনে জানায় শিক্ষক না থাকায় প্রাইভেট পড়া হবে না। সে হাসলী মোড়ে আছে। বাড়ী ফিরতে একটু দেরী হবে। এরপর তারপর আশরাফুলের সাথে আে যোগাযোগ করা যায়নি।

আশরাফুলের পিতা মোহাম্মদ আলী জানান, তিনি ২০০১ সাল থেকে সৌদী আরবে কর্মরত আছেন। বিভিন্ন সময়ে তিনি ছুটিতে দেশে এসেছেন। তার ছেলে অপহরণ হওয়ার পর তিনি দেশে এসেছেন। তিনি বলেন, তিনি বিদেশে থাকাকালে তার ছেলের ইমু নাম্বার (০১৭৮৯৬৯৩৯৫৫) থেকে তার ইমুতে (০১৭৪৮৩৩০৫০৮) ফোন করে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে।

এ ব্যাপারে ৭ আগষ্ট মানিকগঞ্জ সদর থানায় একটি অভিযোগ (৩২৯) দায়ের করা হয়।
পরবর্তীতে পুলিশ, অভিযান চালিয়ে আশরাফুলের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি সিংগাইর উপজেলার আজিমপুর গ্রামের আবুল হোসেনের স্ত্রী মমতাজের নিকট থেকে উদ্ধার করে।

অপহরণকারীরা ২০ আগষ্ট থেকে ৩০ আগষ্ট পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মোবাইল নং থেকে (০১৯৪৮৮২৫৮৫৭, ০১৭২৫৮৮০১৩৩ (বিকাশ), ০১৯৯৮৫৪৯৮২১ (বিকাশ), ০১৩০৫০০৪০৮৮) ফোন করে মুক্তিপণের টাকা দাবী করেন।

মানববন্ধনে অংশ নেয়া নিখোঁজ আশরাফুলের সহপাঠি সাথী আক্তার বলেন, আশরাফুল খুব ভাল ছেলে। সে যেখানে যে অবস্থায়ই থাকুক না কেন তাকে দ্রæত খুঁজে বের করে তাদের মাঝে ফিরিয়ে দেয়া হোক।

স্থানীয় পুটাইল ইউনিয়র পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য আরশেদ আলী বলেন, নিখোঁজ আশরাফুলকে খুঁজে বের করতে পুলিশের তৎপরতা কম।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মফিজ উদ্দিন বলেন, নিখোঁজের ৩৮ দিন অতিবাহিত হলেও আশরাফুল ইসলামকে এখনও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। তিনি আশরাফুলকে উদ্ধার করে তার পরিবারের মাঝে ফিরিয়ে দিতে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের প্রতি আহবান জানান।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রকিবুজ্জামান বলেন, নিখোঁজ আশরাফুলকে খুঁজে বের করতে তারা নানাধরণের কৌশল অবলম্বন করছেন। ইতিমধ্যে তার ব্যবহৃত মোবাইল সেট উদ্ধার করা হয়েছে। প্রযুক্তির মাধ্যমে তারা অনেকদুর এগিযেছেন। তদন্তের স্বার্থে তা বলা যাচ্ছে না বলে, জানান তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নিখোঁজ


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ