Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

নিউইয়র্কের ব্রঙ্কসে বিনম্র শ্রদ্ধায় নাইন ইলেভেনে নিহতদের স্মরণ

যুক্তরাষ্ট্র সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১১:৫৪ এএম

নাইন ইলেভেন নিহতদের স্মরণ করলো নিউইয়র্কের ব্রঙ্কসে বসবাসরত বাংলাদেশীরা। গত ১১ সেপ্টেম্বর বুধবার ৯/১১ এ সন্ত্রাসী হামলার ১৮ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে স্টারলিং বাংলাবাজার এভিনিউতে এশিয়ান ড্রাউভিং স্কুলের সামনে বাংলাদেশ ম্যুরালের সামনে এ প্রার্থনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় । বাংলাদেশ কমিউনিটি কাউন্সিল, হৃদয়ে বাংলাদেশ, ব্রঙ্কস বাংলাদেশ এসোসিয়েশনসহ বেশ কয়েকটি সংগঠন যৌথভাবে এই স্মরণ এবং দোয়ার অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

বিশ্বে যেন এমন বর্বরোচিত সন্ত্রাসী হামলার পূনরাবৃত্তি না ঘটতে পারে সেজন্য জাতি ধর্ম নির্বিশেষে সকলকে একযোগে কাজ করার জন্য বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান হয়। বক্তারা সন্ত্রাসীদের নির্মূল করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, যারা ধর্মের নামে সন্ত্রাস করে তাদের আসলেই কোন ধর্ম নেই। সন্ত্রাসীরা কেবলই সন্ত্রাসী। বক্তারা বাংলাদেশী কম্যুউনিটির পক্ষ থেকে এ ধরনের আয়োজনকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, এর মধ্য শোক প্রকাশ ও বিদেহী আত্মার শান্তি কামনার পাশাপাশি আমরাও যে এই জাতিসত্ত্বার অংশ তা এদেশের সরকার, প্রশাসন ও জনগণকে জানানোর একটা বিরাট সুযোগ।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশী-আমেরিকান কমিউনিটি কাউন্সিলের সভাপতি মোহাম্মদ এন মজুমদার ও সাধারণ সম্পাদক নজরুল হক, আমেরিকান-বাংলাদেশী ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন ইনকের প্রেসিডেন্ট আবদুস শহীদ, সাপ্তাহিক জনতার কন্ঠ’র সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, হৃদয়ে বাংলাদেশের সভাপতি সাইদুর রহমান লিংকন, খলিল বিরিয়ানী হাউজের কর্ণধার রন্ধন শিল্পী মোঃ খলিলুর রহমান, বাংলাদেশ কমিউনিটি অব নর্থ ব্রঙ্কসের সাধারণ সম্পাদক মনজুর চৌধুরী জগলুল, ব্রঙ্কস বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের সভাপতি এ ইসলাম মামুন, সিপিএ জাকির চৌধুরী, কমিউনিটি এক্টিভিস্ট আবদুল বাছির খান, মুকিত চৌধুরী, মিয়া মো. দাউদ প্রমুখ। বাংলাদেশিসহ ভয়ংকর সেই সন্ত্রাসী হামলার শিকার হওয়া ব্যক্তিদের শ্রদ্ধার সাথে স্মরণের পর মোমবাতি প্রজ্জ্বলন ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত ও দোয়া-মুনাজাত পরিচালনা করেন বাংলাবাজার জামে মসজিদের খতীব মাওলানা আবুল কাশেম এয়াহইয়া। এসময় ৯/১১ এ নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা সহ বিশ্ব মানবতার জন্য দোয়া করা হয়।

অনুষ্ঠানে ৯/১১ এ গ্রাউন্ড জিরো’র উদ্ধার কর্মী যুক্তরাষ্ট্রে ইমারজেন্সী মেডিকেল সার্ভিসে প্রথম প্রবাসী বাংলাদেশী প্যারামেডিক মোহতাসিম বিল্লাহ তুষারকে সম্মাননা জানান হয়।

ব্যবসায়ী, সাংস্কৃতিক কর্মী, সাংবাদিক সহ নানা শ্রেণী পেশার বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী উপস্থিত ছিলেন এ সস্মরণ অনুষ্ঠানে।

উল্লেখ্য, ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরের সন্ত্রাসী হামলায় টুইন টাওয়ার ধ্বংস হবার সাথে সাথে ৬ বাংলাদেশিসহ মোট ২৯৭৮ জনের প্রাণহানী ঘটে। নিহত বাংলাদেশিরা হলেন মুক্তাগাছার নূরল হক মিয়া এবং তার স্ত্রী মৌলভীবাজারের শাকিলা ইয়াসমীন, সুনামগঞ্জের সাব্বির আহমেদ, কুমিল্লার মো. শাহজাহান, সিলেটের সালাহ উদ্দিন চৌধুরী এবং নোয়াখালীর আবুল কে চৌধুরী।

প্রবাস জীবন বিভাগে সংবাদ পাঠানোর ঠিকানা
probashjibon.inqilab@gmail.com



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: স্মরণ

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৩ জানুয়ারি, ২০১৯
৮ অক্টোবর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ