Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

জড়িত ইসি কর্মী জনপ্রতিনিধি

রোহিঙ্গা ভোটার দুদকের তদন্ত

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের যোগসাজশে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র পাচ্ছে বলে প্রাথমিক তদন্তে নিশ্চিত হয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। গতকাল রোববার নগরীর জুবিলী রোডের জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে দ্বিতীয় দফা কথা বলার পর দুদক চট্টগ্রাম অঞ্চলের উপ-সহকারী পরিচালক মো. শরিফ উদ্দিন এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, রোহিঙ্গারা ভোটার হয়ে ভুয়া কাগজপত্র দিয়ে পাসপোর্ট করতে যাচ্ছে। এমন ৫৪ জনের তথ্য চট্টগ্রামের মনসুরাবাদ পাসপোর্ট অফিস থেকে দুদককে দেয়া হয়েছে।

রোহিঙ্গারা কাদের সহায়তায় এনআইডি বা স্মার্ট কার্ড পাচ্ছে তাদের ধরতে চায় দুদক। নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ের কেউ জড়িত কি না- তা তারা খতিয়ে দেখছেন বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, শুধু চট্টগ্রাম নয়, বান্দরবান ও কক্সবাজার জেলায় রোহিঙ্গাদের ভোটার হওয়ার ঘটনাগুলোও দুদক খতিয়ে দেখছে।
চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুনীর হোসেন খান বলেন, ভোটার হওয়ার নিয়ম এবং বিস্তারিত প্রক্রিয়া সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন দুদক কর্মকর্তার।
এ বিষয়ে তারা নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলেছেন। স¤প্রতি রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেওয়ার ঘটনায় জেলা নিবার্চন কমিশন কার্যালয় যে তদন্ত কমিটি করেছে, তার প্রতিবেদন দেখতে চেয়েছেন দুদক কর্মকর্তারা। ওই তদন্তের পর ইসি কী ব্যবস্থা নিয়েছে- তাও জানতে চেয়েছেন তারা। এ পর্যন্ত চট্টগ্রাম অঞ্চলে রোহিঙ্গা সন্দেহে ৫৪টি ফরম আলাদা করা হয়েছে জানিয়ে মুনীর হোসেন খান বলেন, তাদের বিষয়ে তদন্ত হচ্ছে। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বলেন, নিয়মমত কাগজপত্র দিলে আমরা ভোটার করে নিই। এ ক্ষেত্রে আমাদের চেয়ে জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব অনেক বেশি।

গত বুধবার জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে গিয়ে রোহিঙ্গাদের ভোটার হওয়ার বিষয়ে প্রথম দফা তথ্য সংগ্রহ করেন দুদক কর্মকর্তারা। শরিফ উদ্দিনের নেতৃত্বে দুদকের একটি দল গতকাল আবারও জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে যায় এবং বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোহিঙ্গা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ