Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

৪ বছর ধরে ছাত্রীকে ধর্ষণ করল শিক্ষক

দাউদকান্দিতে এক সন্তানের জননীসহ শিকার আরো ৫ : আটক ৪

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

নগ্ন ভিডিও ও ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে টানা চার বছর ধরে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলায়। ধর্ষণের পাশাপাশি নগ্ন ভিডিও ও ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার কথা বলে ৩ লাখ টাকাও দাবি করে ধর্ষক উকিল উদ্দিন। নেত্রকোনায় পূর্বধলা উপজেলায় বিস্কুটের লোভ দেখিয়ে এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রতিবন্ধীকে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া দাউদকান্দিতে এক সন্তানের জননীকে ও মাগুরার মহম্মদপুরে শিশু ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এদিকে, পিরোজপুরের কাউখালীতে এক স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগে একজনসহ বিভিন্ন স্থানে ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

জামালপুর : জামালনপুরে নগ্ন ভিডিও ও ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে টানা চার বছর ধরে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের করেছে এক শিক্ষক । অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের নাম উকিল উদ্দিন। উকিল উদ্দিন বকশীগঞ্জ উপজেলার নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের পাগলাপাড়া গ্রামের আবুল হাসেমের ছেলে। এ ঘটনায় বকশীগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই ছাত্রী। তবে অভিযোগের দায়েরের পরও তাকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।
অভিযোগ স‚ত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালে এসএসসি পরীক্ষা দেওয়ার সময় উকিল উদ্দিন ওই ছাত্রীর গৃহশিক্ষক ছিলেন। প্রাইভেট পড়ানোর এক পর্যায়ে দু’জনের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সর্ম্পক গড়ে উঠে। এরপর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে তা ভিডিও ধারণ করেন উকিল উদ্দিন। এই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে গত ৪ বছর ধরে ধর্ষণ করে আসছে ওই শিক্ষক। ধর্ষণের পাশাপাশি নগ্ন ভিডিও ও ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার কথা বলে সর্বশেষ ৩ লাখ টাকাও দাবি করে ধর্ষক উকিল উদ্দিন।

ইতোপূর্বেও ভিডিও ও ছবি ব্যবহার করে পর্যায়ক্রমে দুই লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ করেন ওই কলেজছাত্রী। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী ২৫ আগস্ট বকশীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলেও উকিল উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করতে পারেননি পুলিশ। বকশীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক ও তদন্ত কর্মকর্তা শরীফ আহমেদ জানান, ধর্ষক উকিল উদ্দিনকে গ্রেপ্তারের সর্বাত্মক চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

নেত্রকোনা : নেত্রকোনার প‚র্বধলা উপজেলায় বিস্কুটের লোভ দেখিয়ে এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত শনিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে গতকাল রোববার কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। গ্রেফতার ব্যক্তির নাম দুলাল মিয়া (৪৮)। তার বাড়ি ময়মনসিংহের গৌরীপুর এলাকায়। দীর্ঘদিন ধরে পূর্বধলায় শ্বশুরবাড়িতে বাস করে আসছিলেন তিনি।

পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দা স‚ত্রে জানা গেছে, শনিবার বিকেলে বাড়ির আঙিনায় খেলছিল দ্বিতীয় শ্রেণির ওই শিক্ষার্থী। এ সময় প্রতিবেশী দুলাল তাকে বিস্কুট দেওয়ার লোভ দেখিয়ে নিজের বাড়িতে নিয়ে যান। পরে বাড়ির একটি পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করেন। এ সময় শিশুটির চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজন এসে দুলালকে আটক করেন। পরে তাঁকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। শিশুটিকে উদ্ধার করে প্রথমে প‚র্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
এ ঘটনায় শিশুটির বাবা গতকাল সকালে দুলালকে আসামি করে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। এই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে দুপুরের দিকে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলায় স্বামী পরিত্যক্তা এক মানসিক প্রতিবন্ধী নারীকে গণধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বুধবার উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নের খেয়াঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ওই নারী বর্তমানে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ওই নারীর শ্বশুরবাড়ি কুমিল্লায়। স্বামী পরিত্যক্তা হওয়ায় তিনি বিজয়নগরে বোনের মেয়ের (ভাগনি) সঙ্গে থাকেন। গত বুধবার বেলা ১১টার দিকে তাকে বাসায় একা রেখে ভাগনি বাজারে যান। ফিরে এসে দেখেন খালা কান্নাকাটি করছে। পরে তিনি জানান, স্থানীয় আব্দুল মান্নানের ছেলে লিটন, নুরুল ইসলামের ছেলে জসিম ও আব্দুল জব্বারের ছেলে ফয়সাল তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে।

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) : কুমিল্লার দাউদকান্দিতে এক সন্তানের জননীকে ধর্ষণ করেছে ধর্ষক জিলানী ভূইয়া। গত শনিবার রাতে ধর্ষিতার স্বামী বাদী হয়ে দাউদকান্দি মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। এলাকাবাসীর সূত্রে জানায় উপজেলার ইলিয়টগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়নের পুটিয়া গ্রামে বাদল দত্তের স্ত্রী গত সোমবার রান্না করার সময় একই গ্রামের ওয়াব ভূইয়া পুত্র সন্ত্রাসী জিলানী ভূইয়া গৃহবধূরর মুখ চেপে ধরে ঘরের ভিতর নিয়ে ধর্ষণ করে।

কাউখালী (পিরোজপুর) : পিরোজপুরের কাউখালীতে এক স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগে শাহীন শেখ(৩০) নামে এক রিক্সা চালকে আটক করেছে কাউখালী থানা পুলিশ। গত শনিবার উপজেলার বিআরডিবি অফিসের সামনে থেকে তাকে আটক করে। শাহীন শেখ কাউখালী উপজেলার বাশুরী গ্রামের রশিদ শেখের ছেলে।
কাউখালী থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম যৌন হয়রানীর অভিযোগে শাহীন শেখকে আটকের কথা স্বীকার করে জানান, তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। আটক শাহীনকে রবিবার পিরোজপুর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মাগুরা : মাগুরার মহম্মদপুরে সাদিরুল মোল্যা (২০) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে ২য় শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। গত শনিবার দুপুরে উপজেলার ফুলবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ছাত্রীর পিতা বাদি হয়ে মহম্মদপুর থানায় মামলা করেছেন। অভিযুক্ত সাদিরুল ফুলবাড়ি এলাকার কালাম মোল্যার ছেলে। ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন তিনি।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দুপুরে সাদিরুল ২য় শ্রেণির ওই ছাত্রীকে তার ঘরে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর ওই ছাত্রীর স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এসময় শিশুটি চিৎকার করে কান্না করতে থাকলে তাকে ছেড়ে দিয়ে সাদিরুল পালিয়ে যায়। পরে বিষয়টি শিশুটি তার বাবা-মাকে জানালে তারা তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান।



 

Show all comments
  • MD Akhteruzzaman ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:১৪ এএম says : 0
    এই শিক্ষক কে জুতার মালা গলাই দিয়ে স্কুল কলেজ থেকে বের করে দেওয়া হক
    Total Reply(0) Reply
  • Suhel Khan ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:১৪ এএম says : 0
    আমরা মনে করি শিক্ষক নামের জানোয়ার এরকম শিক্ষককে জুতাপেটা করে আইনের হাতে তুলে দেওয়া দরকার মনে করি
    Total Reply(0) Reply
  • Shepon Roy Shuk ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:১৭ এএম says : 0
    লেখাপড়া করাক আর নাই করাক এই কাজটা তারা বেশ ঠিকমত করে যাচ্ছে এতে সরকারের মুখও বেশ উজ্জল হচ্ছে!!!
    Total Reply(0) Reply
  • রাহিমা রাহিমা ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১:১৮ এএম says : 0
    দেশের এই খবর সুনতে সুনতে আর ভালো লাগেনা একটার পর ওদের কেটে ফেলুক তাইলে ওরা বয় পাইবে
    Total Reply(0) Reply
  • Miah Muhammad Adel ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৯:২০ এএম says : 0
    ধর্ষকরা শিক্ষক হয় না শিক্ষকরা ধর্ষক হয়?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ