Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

সিভিল সার্জনের বিরুদ্ধে কমিশন বাণিজ্যের অভিযোগ

ফরিদপুর জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

ফরিদপুরে স্বাস্থ্য বিভাগের সিভিল সার্জন ডাক্তার এনামুল হকের বিরুদ্ধে কমিশন বাণিজ্যের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বেসরকারি প্যারামেডিক্যাল, নার্সিং ট্রেনিং সেন্টারের ছাত্র- ছাত্রীদের নিকট থেকে ৫ থেকে ৭ হাজার করে টাকা নিয়ে ইন্টার্নি করার সুযোগ দেয়া হয়েছে। এই টাকা ভাগ করে নেয় সদর হাসপাতালের আবাসিক ডাক্তার (আর এম ও) গনেশ চন্দ্র আগরওয়ালা, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাক্তার আফজাল হোসেন ও সিভিল সার্জন ডাক্তার এনামুল হক। তবে ডেপুটি সিভিল সার্জন বলেন, আমি এই বিষয়ে কিছুই জানি না । 

হাসপাতালের (আর এম ও) গনেশ চন্দ্র আগরওয়ালা জানান, ইন্টার্নি ছাত্র-ছাত্রীদের বিষয়ে সব কিছুই অল ইন অল ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ডাক্তার এনামুল হক, টাকার বিষয়টি উনিই জানেন।
ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ডাক্তার এনামুল হক জানান, টাকা নেয়ার নিয়ম আছে তাই টাকা নেয়া হয়। আমি ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে কোনো টাকা নেই নাই। টাকা নিয়েছি প্রতিষ্ঠান থেকে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কোনো বিধানই নেই ইন্টার্নি ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে টাকা নেয়ার। তারপরেও ফরিদপুরের সিভিল সার্জন কমিশন বাণিজ্য করে যাচ্ছেন।
নাম প্রকাশ না করা শর্তে ডিজি অফিস ও ঢাকা বিভাগীয় অফিসের একাধিক কর্মকর্তারা জানান, ইন্টার্নি প্রশিক্ষণকালীন ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে টাকা নেয়ার কোনো বিধান নেই। ফরিদপুরের সিভিল সার্জন যোগদান করার পর থেকে বিভিন্ন প্রকার অনিয়ম করে যাচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন