Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

বন্দুকযুদ্ধে রাজবাড়ীতে ৮ মামলার আসামি নিহত

রাজবাড়ী জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১০:২৬ এএম

রাজবাড়ীর সদর উপজলোয় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক যুবক নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম আবদুর রহিম (৩৮)। পুলিশের দাবি, নিহত রহিম পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি ও অস্ত্রসহ ৮টি মামলা রয়েছে। রহিম জেলা সদরের শহিদওহাবপুর ইউনিয়নের ধুলদী জয়পুর গ্রামের বাসিন্দা।

রোববার রাত ৩টার দিকে উপজেলার চন্দনী ইউনিয়নের কালিবাড়ি এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার জানান, আট মামলার আসামি রহিমকে ধরতে চন্দনী ইউনিয়নের কালিবাড়ী এলাকায় অভিযানে যায় পুলিশ।

এসময় রহিম ও তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে হামলা ও গুলি চালায়। পুলিশও আত্মরক্ষায় পাল্টা গুলি চালালে আবদুর রহিম গুলিবিদ্ধ হন।

পরে তাকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক রহিমকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে দুটি ওয়ান শুটারগান, একটি তাজা কার্তুজ ও নয় রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

রহিমের বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি ও অস্ত্রসহ একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানান ওসি।‘বন্দুকযুদ্ধে’ রাজবাড়ীতে ৮ মামলার আসামি নিহত
রাজবাড়ী জেলা সংবাদদাতা : রাজবাড়ীর সদর উপজলোয় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক যুবক নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম আবদুর রহিম (৩৮)। পুলিশের দাবি, নিহত রহিম পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি ও অস্ত্রসহ ৮টি মামলা রয়েছে। রহিম জেলা সদরের শহিদওহাবপুর ইউনিয়নের ধুলদী জয়পুর গ্রামের বাসিন্দা।

রোববার রাত ৩টার দিকে উপজেলার চন্দনী ইউনিয়নের কালিবাড়ি এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার জানান, আট মামলার আসামি রহিমকে ধরতে চন্দনী ইউনিয়নের কালিবাড়ী এলাকায় অভিযানে যায় পুলিশ।

এসময় রহিম ও তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে হামলা ও গুলি চালায়। পুলিশও আত্মরক্ষায় পাল্টা গুলি চালালে আবদুর রহিম গুলিবিদ্ধ হন।

পরে তাকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক রহিমকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে দুটি ওয়ান শুটারগান, একটি তাজা কার্তুজ ও নয় রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

রহিমের বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি ও অস্ত্রসহ একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানান ওসি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্দুকযুদ্ধ


আরও
আরও পড়ুন