Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

চীনের মধ্যস্ততায় পরিস্থিতি দেখতে মিয়ানমারে যাবে রোহিঙ্গা প্রতিনিধিদল

বিশেষ সংবাদদাতা, কক্সবাজার | প্রকাশের সময় : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৮:৩৭ পিএম

মিয়ামারের পরিস্থিতি দেখতে চীন রোহিঙ্গা প্রতিনিধিদল পাঠাতে চায় মিয়ানমারে। গতকাল টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের সাথে আলাপকালে চীনের রাষ্ট্রদূত লিঝিমিং একথা বলেন।

মিয়ানমারের আরাকান রাজ্যের রাখাইন থেকে সেনা নির্যাতনের মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন নিয়ে জটিলতা নিরসনে চীনা রাষ্ট্রদূত লিঝিমিং এর নেতৃত্বে চীনা প্রতিনিধিদলটি এখনো কক্সবাজারে অবস্থান করছেন।

গত কাল সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) টেকনাফ শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করে সেখানে রোহিঙ্গাদের সাথে কথা বলেছেন তাঁরা। এসময় চীনের রাষ্ট্রদূত লিঝিমিং ২০ জন রোহিঙ্গা নারী পুরুষের সাথে কথা বলেছেন। রোহিঙ্গারা এ সময় জানিয়েছেন তাদের তিন দফা দাবি পূরণ হলে তারা মিয়ানমারে দ্রুত ফিরে যেতে চায়। তবে মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার কোন পরিবেশ এখনও তৈরি হয়নি। তাদের মৌলিক দাবিগুলোর ব্যাপারে মিয়ানমারের পক্ষ থেকে আশাব্যঞ্জক সাড়া এখনো পাওয়া যায়নি। তাই তারা মিয়ানমারে ফিরতে শঙ্কিত।

রোহিঙ্গাদের দাবির মধ্যে রয়েছে তাদেরকে বাড়ি ফেরত দেয়া, তাদের নাগরিক স্বাধীনতা ও তাদের ক্ষতিপূরণ দেয়া। এ সময় চীনা প্রতিনিধি দল রোহিঙ্গাদের একটি প্রতিনিধি দল মিয়ানমারে পাঠানোর আগ্রহের কথা জানালে রোহিঙ্গারা স্বাগত জানিয়ে বলেন, তারা যেতে রাজি। এ সময় চীনা প্রতিনিধিদলের সাথে আরআরসি অফিসের কর্মকর্তা ও ক্যাম্পে কর্মরত কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

রোহিঙ্গা নেতারা বলেন, প্রতিনিধি দলটি মিয়ানমারে গিয়ে সেখানকার অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে নিরাপত্তামূলক বলে মনে হলে তারা সপরিবারে সেখানে ফিরে যাবেন।
উল্লেখ্য রহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সৃষ্ট জটিলতা নিরসনে বাংলাদেশ-মিয়ানমারের মাঝখানে চীনা মধ্যস্থতায় এই জটিলতা নিরসন হতে পারে বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।

এর আগে চীনা প্রতিনিধিদলটি কেরুনতলী ট্রানজিট ঘাট পরিদর্শন করেন। এসময় কর্মকর্তারা জানান, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের ব্যাপারে বাংলাদেশ প্রস্তুত রয়েছে। গত ২২ আগস্ট ২য় বার রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের নির্ধারিত সময় প্রতিনিধি পাঠালেও তখন প্রত্যাবাসন বন্ধ হয়ে যায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোহিঙ্গা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ